সপ্তম শ্রেণির বাংলা ২য় বানান বহুনির্বাচনী প্রশ্নউত্তর

৯. বানান
২৭৪. বাংলা বানানের নিয়ম বেঁধে দেওয়ার ক্ষেত্রে কোন প্রতিষ্ঠানা অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করে?
ক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
খ জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড
গ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
 বাংলা একাডেমি
২৭৫. নিচের কোন বানানটি অশুদ্ধ?
ক বরণ খ চরণ  ধরণ ঘ হরণ
২৭৬. বাগ্ধ্বনিকে বর্ণ বা হরফের সাহায্যে লিখিত রূপ দেওয়ার প্রক্রিয়াকে কী বলে?
ক লেখ্যরীতি খ লেখ্য ভাষা
গ শব্দভাণ্ডার  বানান
২৭৭. প্রতিটি ভাষার ক্ষেত্রেই প্রয়োজন-
র. সুনিয়ন্ত্রিত বানান পদ্ধতি রর. শব্দের অলিখিত রূপ
ররর. সুশৃঙ্খল বানান পদ্ধতি
নিচের কোনটি ঠিক?
ক র খ র ও রর
 র ও ররর ঘ র, রর ও ররর
২৭৮. যৌগিক শব্দ গঠনের ক্ষেত্রে বানানের নিয়মে কোনো পরিবর্তন আসবে কিনা, তা জানার একমাত্র উপায় কী?
 বানানরীতি খ শব্দের উৎস
গ শব্দের অর্থ ঘ শব্দের গঠন
২৭৯. কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় প্রস্তাবিত ‘বাংলা বানানের নিয়ম’-এর প্রথম সংরস্করণ কত সালে প্রকাশিত হয়?
ক ১৯২৬  ১৯৩৬ গ ১৯৪৬ ঘ ১৯৫৬
২৮০. বাংলাদেশে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কত সালে বাংলা বানানের একটি নীতিমালা প্রণয়ন করে?
ক ১৯৮৬ খ ১৯৮৮  ১৯৮৮ ঘ ১৯৮৯
২৮১. বাংলা একাডেমি ‘প্রমিত বাংলা বানানের নিয়ম’ কত সালে প্রকাশিত হয়?
 ১৯৯২ সালের জানুয়ারি মাসে
খ ১৯৯২ সালের ফেব্রæয়ারি মাসে
গ ১৯৯২ সালের মার্চ মাসে
ঘ ১৯৯২ সালের এপ্রিল মাসে
২৮২. উৎসগত দিক থেকে বাংলা ভাষার শব্দসমূহ কয় ভাগে বিভক্ত?
ক দুই খ তিন গ চার  পাঁচ
২৮৩. সংস্কৃত ভাষা থেকে যেসব শব্দ সরাসরি বাংলায় এসেছে, সেগুলোকে বলা হয়-
 তৎসম শব্দ খ তদ্ভব শব্দ
গ দেশি শব্দ ঘ বিদেশি শব্দ
২৮৪. বাংলা বানানের নিয়ম জানা প্রয়োজন কেন?
ক পরীক্ষায় বেশি নম্বর পাওয়ার জন্য
খ শুদ্ধ ভাষায় কবিতা লেখার জন্য
গ নিয়ম রক্ষার জন্য
 ভাষার সামগ্রিক শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য
২৮৫. পাঁচ ভাগে বিভক্ত উৎসগত শব্দগুলোর মধ্যে সংস্কৃত উৎসজাত শব্দ হচ্ছে-
ক তৎসম, অর্ধ-তৎসম, দেশি
 তৎসম, অর্ধ-তৎসম, তদ্ভব
গ অর্থ-তৎসম, তদ্ভব, বিদেশি
ঘ তদ্ভব, দেশি, বিদেশি
২৮৬. অনার্য জাতির ভাষা থেকে কোন শব্দগুলো বাংলা ভাষায় এসেছে?
ক তৎসম খ তদ্ভব  দেশি ঘ বিদেশি
২৮৭. বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত বিদেশি শব্দগুলোর মধ্যে প্রধান হচ্ছে-
র. আরবি, ফারসি, তুর্কি রর. পর্তুগিজ, ইংরেজি, ফরাসি
ররর. জাপানি, চীনা, গুজরাটি
নিচের কোনটি ঠিক?
ক র  র ও রর
গ র ও ররর ঘ র, রর ও ররর
২৮৮. ণত্ব ও ষত্ব বিধান কোন শব্দের বানানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য?
 তৎসম খ ণত্ব বিধান
গ অর্ধ তৎসম ঘ খাঁটি বাংলা
২৮৯. যে রীতি অনুসারে তৎসম শব্দের বানানে দন্ত-ন-এর পরিবর্তে মূর্ধন্য-ণ ব্যবহৃত হয় তাকে কী বলে?
ক তৎসম বিধান  ণত্ব বিধান
গ ষত্ব বিধান ঘ আট বিধান
২৯০. ‘ঋণ’ বানানে ‘ণ’ হলো কোন নিয়মে?
 ‘ঋ’ এর পর ‘ণ’ হয়
খ শব্দের প্রথমে ‘ঋ’-কারের পর ‘ণ’ হয়
গ দুই বর্ণের বানানে ‘ণ’ হয়
ঘ ‘ঋণ’ বানানে স্বভাবতই ‘ণ’ হয়
২৯১. নিচের কোন বানানটি সঠিক?
ক ত্রিন  তৃণ গ তৃন ঘ তৃনো
২৯২. তৎসম শব্দের বানানে ‘র’ এর পর ‘ণ’ হয় এই নিয়মের আলোকে কোন বানানটি শুদ্ধ?
ক পরিবাহণ  কিরণ
গ পরিবান ঘ পরিব্রজণ
২৯৩. নিচের কোন বানানটি শুদ্ধ?
 মুদ্রণ খ চিত্রন গ আমন্ত্রন ঘ মিশণ
২৯৪. তৎসম শব্দের বানানে রেফ এর পর ‘ণ’ হয় এই নিয়মে কোন বানানটি শুদ্ধ?
ক জার্ণি  অর্ণব গ মূর্ধন্য ঘ অর্গাণ
২৯৫. নিচের কোন বানানটি শুদ্ধ?
 আকর্ষণ খ নয়ণ গ আলুণি ঘ উত্তোলণ
২৯৬. নিচের কোন বানানটি ণত্ব বিধানের নিয়মে হয়েছে?
ক ক্যান্টনমেণ্ট  কণ্টক
গ মুভেমন্ট ঘ হাণ্ট
২৯৭. নিচের কোন বানানটি ণত্ব বিধানের নিয়মানুষারে হয়েছে?
 পণ্ডিত খ প্রতিষ্ঠাণ গ আনমণ ঘ সেণ্টার
২৯৮. কোন বানানগুচ্ছটি শুদ্ধ?
ক চরন, ভাষণ, জাগরণ খ ঘর্ষণ, সাজোয়াণ, ঋণ
গ নয়ণ, দীর্ণ, লক্ষণ  ঘণ্টা, দূষণ, বরণ
২৯৯. প্র, পরি, নিরÑ এই তিনটি উপসর্গের পর ‘ণ’ হয় এই নিয়মে কোন বানানটি সঠিক?
 প্রণয় খ প্রচলণ গ পরিদর্শণ ঘ প্রদাণ
৩০০. কোন বানানটি শুদ্ধ?
ক অভিবাদণ খ অভিযান  প্রণতি ঘ প্রদাণ
৩০১. কোন বানানটিতে স্বভাবতই ণত্ব বিধানের প্রয়োগ ঘটেছে?
ক দীর্ণ খ কণ্ঠ  গৌণ ঘ অপরাহ্ন
৩০২. কোন বানানটিতে ণত্ব বিধানের প্রয়োগ ঘটে নি?
ক কণ্টক  দুরন্ত গ গণিত ঘ পণ্য
৩০৩. কোন বানানটি সঠিক?
 ত্রিনয়ন খ চন্দ্রায়ন গ অপরাহ্ন ঘ নগন্য
৩০৪. তৎসম শব্দের বানানে ‘ঋ’ বা ঋ-কারের পর ‘ষ’ হয় এই নিয়মে কোন বানানটি গঠিত হয়েছে?
ক বর্ষণ  কৃষক গ ঈর্ষা ঘ মহর্ষি
৩০৫. বাংলা বানানে র-এর পর মূর্ধন্য-ণ ব্যবহারের উদাহরণ কোনটি?
 কিরণ, বিতরণ খ ব্যাকরণ, ঘৃণা
গ উচ্চারণ, তৃণ ঘ চরণ, চিত্রণ
৩০৬. ই-কারান্ত উপসর্গের পর কতকগুলো ধাতুর দন্ত্য-স মূর্ধন্য হয়। যেমন-
র. পরিষদ, বিষাদ রর. অনুসঙ্গ, অনুষ্ঠান
ররর. অভিষেক, প্রতিষ্ঠান
নিচের কোনটি ঠিক?
ক র খ র ও রর
 র ও ররর ঘ র, রর ও ররর

Share to help others:

Leave a Reply