You are currently viewing তৃতীয় শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অধ্যায় ৩ আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব

তৃতীয় শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অধ্যায় ৩ আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব

তৃতীয় শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অধ্যায় ৩ আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব পোস্টে এই অধ্যায়ের অনুশীলনীর প্রশ্নউত্তর সহ অতিরিক্ত সংক্ষিপ্ত ও সৃজনশীল প্রশ্নউত্তর দেওয়া হলো।

৩য় শ্রেণির বা ও বি অধ্যায় ৩ আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব

⇒ অধ্যায়টির মূলভাব জেনে নিই
খাদ্য, পোশাক, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থান, নিরাপত্তাসহ অন্যান্য বিশেষ অধিকারগুলো শিশুর সুস্থভাবে বেড়ে ওঠার জন্য অত্যন্ত জরুরি। পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের দায়িত্ব হলো শিশু অধিকারগুলো পূরণ করা। সেই সাথে শিশুদেরকেও তাদের দায়িত্বের বিষয়ে সচেতন হতে হবে। পরিবারের নিয়মকানুন মেনে চলা, মা-বাবা ও বড়দের শ্রদ্ধা করা, পরিবারের কারো অসুখ হলে তার সেবা-যতœ করা, এগুলো হলো পরিবারের প্রতি শিশুদের কর্তব্য। পরিবারের প্রতি দায়িত্বগুলো ভালোভাবে পালন করলে অধিকারগুলোও সঠিকভাবে ভোগ করা যায়।

৩য় শ্রেণির বা ও বি অধ্যায় ৩ অনুশীলনীর প্রশ্ন ও উত্তর

আমাদের মৌলিক অধিকারগুলো আমরা কিসের মাধ্যমে পূরণ করি তা উদাহরণ দিয়ে বল।
উত্তর : আমাদের মৌলিক অধিকারগুলো আমরা যেগুলোর মাধ্যমে পূরণ করি তা উদাহরণ দিয়ে বলা হলো-
খাদ্য : ভাত, ডাল, মাছ, দুধ, শাকসবজি ইত্যাদি।
পোশাক : শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবি, সালোয়ার, কামিজ, শাড়ি ইত্যাদি।
শিক্ষা : বই, খাতা, কলম, বিদ্যালয়, কলেজ ইত্যাদি।
বাসস্থান : ঘরবাড়ি, দালান-কোঠা, প্রাসাদ ইত্যাদি।
নিরাপত্তা : ঘরবাড়ি, পুলিশ, সেনাবাহিনী ইত্যাদি।
স্বাস্থ্য : ডাক্তার, ওষুধ, পুষ্টিকর খাবার, শরীরচর্চা, চিকিৎসাসেবা ইত্যাদি।

শিক্ষা অর্জন করা কেন প্রয়োজন? এক বাক্যে লেখ।
উত্তর : মানুষের মতো মানুষ হয়ে দেশের উন্নতি করার জন্য শিক্ষা অর্জন করা প্রয়োজন।

মনে কর একটি ভয়াবহ দুর্যোগে তুমি আটকা পড়েছ। এরকম অবস্থায় এই ছয়টি অধিকারের কোনটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হবে বলে তোমার মনে হয়? প্রয়োজন অনুসারে ছয়টি অধিকার সাজাও। কাজটি ছোট দলে কর।
১ ২ ৩
৪ ৫ ৬
উত্তর : একটি ভয়াবহ দুর্যোগে আমি আটকা পড়েছি। এরকম অবস্থায় ছয়টি অধিকারের মধ্যে খাদ্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন বলে আমার মনে হয়েছে। প্রয়োজন অনুসারে ছয়টি অধিকার নিচে সাজানো হলো-
১. খাদ্য, ২. নিরাপত্তা, ৩. বাসস্থান,
৪. স্বাস্থ্য, ৫. পোশাক, ৬. শিক্ষা।

⇒ সঠিক শব্দ দিয়ে শূন্যস্থান পূরণ কর।
১. আমাদের সমাজে —- টি মৌলিক অধিকার আছে।
২. এ অধিকারের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো —-।
উত্তর : ১. ৬ ২. খাদ্য।

শ্রেণিতে আলোচনা কর
>> তোমার পরিবারে ছেলে ও মেয়েদের কি সমানভাবে দেখা হয়?
উত্তর : সহপাঠীদের সাথে আলোচনা কর।

তোমার পরিবার তোমাকে কীভাবে প্রতিটি অধিকার প্রদান করছে তা উদাহরণ দিয়ে নিচের ছকে লেখ, কাজটি জোড়ায় কর।
পরিবারে শিশু হিসেবে আমার অধিকার




উত্তর : আমার পরিবার আমাকে যেভাবে প্রতিটি অধিকার প্রদান করছে তা উদাহরণ দিয়ে নিচের ছকে লেখা হলো-
পরিবারে শিশু হিসেবে আমার অধিকার
১ পরিবার আমার জন্ম নিব>>নের ব্যবস্থা করেছে।
২ পরিবার থেকে আমার একটি নাম রাখা হয়েছে।
৩ পরিবারের সবাই আমাকে অনেক স্নেহ করে।
৪ আমার জন্য পুষ্টিকর খাবার ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
৫ আমি নিয়মিত খেলাধুলা করি ও প্রয়োজনমতো বিশ্রাম নিই।
৬ পরিবার আমার পড়াশোনার ব্যবস্থা করেছে।
৭ আমার পরিবারে ছেলে ও মেয়েশিশুদের সমান সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হয়।

বিদ্যালয়ে শিশু-দিবস কীভাবে পালন করা যেতে পারে তা পরিকল্পনা কর।
>> বিদ্যালয়ে সমাবেশে কী করতে পার?
>> শ্রেণিকক্ষ কীভাবে সাজানো যেতে পারে?
>> কোনো নাটক করা যায় কি না?
উত্তর : বিদ্যালয়ে শিশু-দিবস যেভাবে পালন করা যেতে পারে তার পরিকল্পনা নিচে দেওয়া হলো-
>> বিদ্যালয়ের সমাবেশে শিশুর অধিকার, শিক্ষার সুযোগ ইত্যাদির প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে আলোচনা করা যেতে পারে।
>> শ্রেণিকক্ষ বিভিন্ন রঙের কাগজ, ফুল, পোস্টার, দেয়াল, চিত্র, ফেস্টুন ও বেলুন দিয়ে সাজানো যেতে পারে।
>> শ্রেণিশিক্ষকের সহায়তায় সহপাঠীদের নিয়ে শিশু অধিকার-বিষয়ক নাটক করা যেতে পারে।

⇒ সঠিক উত্তরের পাশে টিকচি‎হ্ন (√) দাও।
কোনটি শিশু-অধিকার?
√ক) জন্ম নিব>>ন খ) নিয়ম মানা
গ) বড়দের শ্রদ্ধা করা ঘ) অসুখে সেবা করা

তুমি পরিবারে কী কী দায়িত্ব পালন করতে পার বলে মনে কর? উদাহরণ দিয়ে বল।
উত্তর : আমি পরিবারে যে ধরনের দায়িত্ব পালন করতে পারি বলে মনে করি তা নিচে উদাহরণসহ তুলে ধরা হলো-
১) পরিবারের নিয়মকানুন মেনে চলা।
২) মা-বাবা এবং বড়দের শ্রদ্ধা করা।
৩) পরিবারে কারো অসুখ হলে সেবাযতœ করা।
৪) বড় ভাই-বোনদের সম্মান করা।
৫) ছোটদের স্নেহ ও আদর করা।

নিচের বাক্যগুলো সঠিক ঘরে লেখ, কাজটি জোড়ায় কর।
>> ছোট ভাই-বোনের দেখাশোনা করা
>> প্রয়োজনীয় পোশাক থাকা
>> বিদ্যালয়ে যাওয়া
>> নিজের কাপড় পরিষ্কার করা
অধিকার দায়িত্ব

উত্তর : নিচের বাক্যগুলো ছকের সঠিক ঘরে লেখা হলো; কাজটি আমরা জোড়ায় করেছি।
অধিকার দায়িত্ব
প্রয়োজনীয় পোশাক থাকা ছোট ভাই-বোনের দেখাশোনা করা
বিদ্যালয়ে যাওয়া নিজের কাপড় পরিষ্কার করা

দলে ‘শিশু-অধিকার’ এবং ‘দায়িত্ব’ নিয়ে একটি পোস্টার তৈরি কর।
পোস্টারের বাম পাশে অধিকারগুলো লেখ এবং ছবি আঁক। ডান পাশে দায়িত্বের উদাহরণ দাও ও ছবি আঁক।
উত্তর : শ্রেণিশিক্ষকের সহায়তায় সহপাঠীদের নিয়ে নিজেরা চেষ্টা কর।

⇒ সঠিক উত্তরের পাশে টিকচি‎হ্ন (√) দাও।
পরিবারের প্রতি আমাদের দায়িত্ব কোনটি?
ক) খেলাধুলা করা
√ খ) নিয়ম-কানুন মেনে চলা
গ) পড়ালেখা করা
ঘ) জন্ম নিব>>ন করা

অতিরিক্ত প্রশ্ন ও উত্তর

⇒ বাম অংশের সাথে ডান অংশের মিলকরণ
ক) খাদ্য, পোশাক, শিক্ষা, চিকিৎসা ও বাসস্থান
খ) স্নেহ ও ভালোবাসা পাওয়ার অধিকার
গ) সমাজে সব শিশুর অধিকারকে আমরা
ঘ) সমাজের সবার
ঙ) অক্টোবরের প্রথম সোমবার বেঁচে থাকার অধিকার আছে।
গুরুত্ব দেব।

বিশ্ব শিশু দিবস।

মৌলিক অধিকার।
বিশেষ অধিকার।
উত্তর :
ক) খাদ্য, পোশাক, শিক্ষা, চিকিৎসা ও বাসস্থান মৌলিক অধিকার।

খ) স্নেহ ও ভালোবাসা পাওয়ার অধিকার বিশেষ অধিকার।
গ) সমাজে সব শিশুর অধিকারকে আমরা গুরুত্ব দেব।
ঘ) সমাজের সবার বেঁচে থাকার অধিকার আছে।
ঙ) অক্টোবরের প্রথম সোমবার বিশ্ব শিশু দিবস।
⇒ শুদ্ধ/অশুদ্ধ নির্ণয়
ক) আমাদের মৌলিক অধিকার ৭টি।
খ) সমাজে বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজন মৌলিক অধিকার।
গ) জন্ম নিব>>নের অধিকার শিশুর মৌলিক অধিকার।
ঘ) পরিবারের নিয়মকানুন মেনে চলা আমাদের দায়িত্ব।
ঙ) বড় ভাই-বোনকে আমরা স্নেহ ও আদর করব।
উত্তর : ক) অশুদ্ধ খ) শুদ্ধ গ) অশুদ্ধ ঘ) শুদ্ধ ঙ) অশুদ্ধ।

তৃতীয় শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অধ্যায় ৩ বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

⇒ শূন্যস্থান পূরণ
ক) অধিকার ভোগের পাশাপাশি পরিবারের প্রতি আমাদের কিছু — আছে।
খ) পরিবারে সব শিশুর —- অধিকার আছে।
গ) মা-বাবাকে শ্রদ্ধা করা শিশুর একটি —-।
ঘ) সমাজে সবার বেঁচে থাকার —- আছে।
ঙ) প্রতিবছর —- মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব শিশু দিবস পালন করা হয়।
উত্তর : ক) দায়িত্ব খ) সমান গ) দায়িত্ব ঘ) অধিকার ঙ) অক্টোবর।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর

১. মৌলিক অধিকার কাকে বলে? দুটি মৌলিক অধিকার লেখ।
উত্তর : সমাজে বেঁচে থাকার জন্যে আমাদের যে সকল অধিকার পূরণ হওয়া অবশ্যই প্রয়োজন সেগুলোকে মৌলিক অধিকার বলে। দুটি মৌলিক অধিকার হলো- খাদ্যের অধিকার ও বস্ত্রের অধিকার।
২. শিশুর তিনটি বিশেষ অধিকার লেখ। শিশু এগুলো না পেলে কী হবে?
উত্তর : শিশুর তিনটি বিশেষ অধিকার হলো :
১) জন্ম নিব>>নের অধিকার।
২) একটি নাম পাওয়ার অধিকার।
৩) স্নেহ ও ভালোবাসা পাওয়ার অধিকার।
এ অধিকারগুলো না পেলে শিশুর সুস্থ ও সুন্দরভাবে বেড়ে ওঠা হবে না।
৩. পরিবারের প্রতি শিশুর কর্তব্যের একটি তালিকা তৈরি কর।
উত্তর : শিশু যেমন পরিবার থেকে কতগুলো অধিকার ভোগ করে তেমনি পরিবারের প্রতি তার কতগুলো কর্তব্যও রয়েছে। নিচে পরিবারের প্রতি শিশুর কর্তব্যের একটি তালিকা তুলে ধরা হলো :
পরিবারের প্রতি শিশুর কর্তব্য
১. পরিবারে নিয়মকানুন মেনে চলা।
২. মা-বাবা ও বড়দের শ্রদ্ধা করা।
৩. পরিবারে কারো অসুখ হলে সেবা-যতœ করা।
৪. মা-বাবা ও অন্যদের পরিবারের বিভিন্ন কাজে সাহায্য করা।
৫. বড় ভাই-বোনকে সম্মান করা এবং ছোটদের স্নেহ ও আদর করা।
পরিবারের প্রতি তাদের এ দায়িত্বগুলো ভালোভাবে পালন করতে হবে। তবেই তারা পরিবারের দেওয়া অধিকারগুলো ভোগ করতে পারবে।
৪. শিশু অধিকারগুলো প্রয়োজন কেন?
উত্তর : সুস্থ ও সুন্দরভাবে বেড়ে ওঠার জন্য শিশু অধিকারগুলো প্রয়োজন। শিশু অধিকারগুলো পেলে শিশু লেখাপড়া শিখে উপযুক্ত মানুষ হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারবে। পরিবার, সমাজ ও দেশের উন্নয়নে কাজ করতে পারবে।
৫. জীবনকে ভালোভাবে গড়ে তোলার জন্য কী কী দরকার?
উত্তর : জীবনকে ভালোভাবে গড়ে তোলার জন্য আমাদের দরকার খাদ্য, পোশাক, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থান ও নিরাপত্তা।
৬. শিশু অধিকার পূরণের দায়িত্ব কাদের?
উত্তর : শিশু অধিকার পূরণের দায়িত্ব পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের।
৭. প্রতিবছর বিশ্ব শিশু দিবস পালন করা হয় কখন?
উত্তর : প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব শিশু দিবস পালন করা হয়।
৮. শিশু হিসেবে অধিকার বিষয়ে তোমার দায়িত্ব কী?
উত্তর : শিশু হিসেবে অধিকার বিষয়ে আমার দায়িত্ব হলো অধিকারগুলোকে কাজে লাগিয়ে জীবনকে সুন্দরভাবে গড়ে তোলা।

কাঠামোবদ্ধ প্রশ্ন ও উত্তর

> সাধারণ
১. বিশ্ব শিশু দিবস কত তারিখে পালন করা হয়? পরিবারে শিশুর ৪টি দায়িত্ব সম্পর্কে লেখ।
উত্তর : প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব শিশু দিবস পালিত হয়। পরিবারে শিশুরা অনেক অধিকার ভোগ করে, পাশাপাশি তাদেরকে কিছু দায়িত্বও পালন করতে হয়, নিচে পরিবার শিশুর দায়িত্ব সম্পর্কে ৪টি বাক্য লেখা হলো ঃ
১) পরিবারের নিয়মকানুন মেনে চলতে হয়;
২) মা-বাবা, বড়দের শ্রদ্ধা করতে হয়;
৩) পরিবারের কারো অসুখ হলে সেবাযতœ করতে হয়;
৪) পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন কাজে সাহায্য করতে হয়।
>> যোগ্যতাভিত্তিক
২. আদনান ও আয়শা ভাই-বোন। শিশু হিসেবে পরিবারে তাদের ৪টি বিশেষ অধিকার সম্পর্কে লেখ। অধিকারগুলো ভোগের জন্য তাদের কী করতে হবে?
উত্তর : আদনান ও আয়শা পরিবার থেকে সুন্দর দুটি নাম পেয়েছে। এটি তাদের বিশেষ অধিকার। পরিবার থেকে তারা আরও যে ৩টি অধিকার পাবে সেগুলো হলো :
১) জন্ম নিব>>নের অধিকার;
২) স্নেহ ও ভালোবাসার অধিকার;
৩) পুষ্টি ও চিকিৎসার অধিকার।
৪) খেলাধুলা ও বিশ্রামের অধিকার।
অধিকার ভোগ করার জন্য তাদেরকে পরিবারের প্রতি কিছু কর্তব্য পালন করতে হবে।

যাচাই করি (নমুনা প্রশ্ন) অধ্যায় ৩ : আমাদের অধিকার ও দায়িত্ব

 অল্প কথায় উত্তর দাও :
১. বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় মৌলিক অধিকারগুলো কী?
উত্তর : বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় মৌলিক অধিকারগুলো হলো- খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা।
২. স্বাস্থ্যসেবায় তোমার অধিকারের একটি উদাহরণ দাও।
উত্তর : সরকারি হাসপাতালে যথাযথ চিকিৎসা পাওয়া স্বাস্থসেবায় আমার একটি অধিকার।
৩. কোন তারিখে বিশ্ব শিশু-দিবস পালিত হয়?
উত্তর : প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব শিশু-দিবস পালন করা হয়।
৪. কাদের প্রতি তোমরা তোমাদের দায়িত্ব পালন করবে?
উত্তর : পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি আমরা আমাদের দায়িত্ব পালন করব।
>> প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
১. ছেলে ও মেয়ের সমান অধিকার- একটি উদাহরণসহ বুঝিয়ে দাও।
উত্তর : পরিবারের ছেলে ও মেয়ে শিশু দুজনকেই শিক্ষার সমান সুযোগ দিতে হবে। এটি হলো ছেলে-মেয়ের সমান অধিকার।
২. অধিকার ও দায়িত্বের মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর : অধিকার ভোগ করা হয় আর দায়িত্ব অন্যের প্রতি পালন করতে হয়।

প্রিয় জনের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply