নবম-দশম শ্রেণীর হিসাব বিজ্ঞান ষষ্ঠ অধ্যায় জাবেদা সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

ষষ্ঠ অধ্যায়
জাবেদা

 জাবেদার ধারণা
ব্যবসায়িক লেনদেনসমূহ সংঘটিত হওয়ার পর তারিখের ক্রম অনুযায়ী ডেবিট ও ক্রেডিট পক্ষ বিশ্লেষণ করে সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যাসহ যে বইয়ে সর্বপ্রথম লিপিবদ্ধ করা হয়, তাকে জাবেদা বলা হয়। একে কেউ কেউ হিসাবের প্রাথমিক বই, সহকারী বই, সাহায্যকারী বই, দৈনিক বই হিসেবেও অভিহিত করে থাকেন।
 জাবেদার গুরুত্ব
প্রতিষ্ঠানের হিসাবের বই নির্ভুল ও স্বচ্ছ হওয়া অত্যাবশ্যক। এই হিসাবের ভিত্তিতেই প্রতিষ্ঠানের আর্থিক ফলাফল ও সার্বিক আর্থিক অবস্থা নিরূপণ করা হয়। হিসাববিজ্ঞানের মুখ্য এই উদ্দেশ্য অর্জনে জাবেদা বিশেষ ভ‚মিকা পালন করে।
লেনদেন লিপিবদ্ধকরণ : দৈনন্দিন সংঘটিত লেনদেনগুলোকে জাবেদায় তারিখের ক্রমানুসারে ধারাবাহিক আকারে লিপিবদ্ধ করা হয়। এ কারণে লেনদেনগুলো পরবর্তীতে খতিয়ানে অন্তর্ভুক্তকরণে কোন অসুবিধা না হয়।
লেনদেনের মোট সংখ্যা ও পরিমাণ জানা : জাবেদায় লেনদেন তারিখের ক্রমানুসারে লিখা হয় বলে নির্দিষ্ট তারিখে, সপ্তাহে বা মাসে মোট কয়টি লেনদেন ঘটেছে তা সহজেই জানা যায়। বিভিন্ন সময়ে মোট কত টাকার লেনদেন হয়েছে সেটির পরিমাণও জানা যায়।
দ্বৈত স্বত্বার প্রয়োগ নিশ্চিত : কোনো লেনদেন সংঘটিত হওয়া মাত্র দু’তরফা দাখিলা পদ্ধতি সূত্রমতে ডেবিট ও ক্রেডিট বিশ্লেষণ করে একটি হিসাবকে ডেবিট ও অন্য হিসাবকে ক্রেডিট করে জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয়। ফলে জাবেদা হতে দ্বৈত স্বত্বার প্রয়োগ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়।
লেনদেনের ব্যাখ্যা : প্রতিটি লেনদেনের উৎস ও প্রকৃতি নিরূপণের উদ্দেশ্যে তারিখ অনুযায়ী জাবেদাভুক্ত প্রতিটি লেনদেনের সপক্ষে প্রয়োজনীয়, প্রাসঙ্গিক ও সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা প্রদান করা হয়।
ভুলত্রæটি হ্রাস : লেনদেন খতিয়ানে অন্তর্ভুক্তের পূর্বে জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয় বলে হিসাবে ভুলত্রæটি এবং খতিয়ানে বাদ পড়ার সম্ভাবনা হ্রাস পায়।
ভবিষ্যৎ সূত্র : জাবেদায় লেনদেনসমূহকে তারিখের ক্রমানুসারে সুশৃঙ্খলভাবে সাজিয়ে লিখে রাখা হয়। কারণ, ভবিষ্যৎ যেকোনো প্রয়োজনে জাবেদা দলিল বা প্রমাণস্বরূপ হিসেবে ব্যবহার করা যায়।
পাকা বহির সহায়ক : জাবেদা খতিয়ানের সহায়ক বই স্বরূপ কাজ করে বিধায়, খতিয়ান প্রস্তুত সহজ, পরিচ্ছন্ন ও নির্ভুল হয়।
 জাবেদার শ্রেণিবিভাগ
লেনদেনের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে জাবেদার শ্রেণিবিভাগ করা হয়। জাবেদার শ্রেণিবিভাগ নি¤œরূপ :

 বিশেষ জাবেদা
১. ক্রয় জাবেদা : ক্রয় জাবেদায় প্রতিষ্ঠানের সকল বাকিতে পণ্য ক্রয় লিপিবদ্ধ করা হয়।
২. বিক্রয় জাবেদা : বিক্রয় জাবেদায় প্রতিষ্ঠানের সকল বাকিতে পণ্য বিক্রয় লিপিবদ্ধ করা হয়।
৩. ক্রয় ফেরত জাবেদা : বাকিতে ক্রয়কৃত পণ্য ফেরত দেয়া হলে ক্রয় ফেরত জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয়।
৪. বিক্রয় ফেরত জাবেদা : বাকিতে বিক্রয়কৃত পণ্য ফেরত পাওয়া গেলে বিক্রয় ফেরত জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয়।
৫. নগদ প্রাপ্তি জাবেদা : যে সকল লেনদেনের দ্বারা নগদ প্রাপ্তি ঘটে (নগদ পণ্য বিক্রয়সহ) তা নগদ প্রাপ্তি জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয়।
৬. নগদ প্রদান জাবেদা : যে সকল লেনদেনের দ্বারা নগদ প্রদান ঘটে (নগদ পণ্য ক্রয়সহ) তা নগদ প্রদান জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা হয়।
 প্রকৃত জাবেদা
সাধারণ জাবেদা ও প্রকৃত জাবেদা একই অর্থবোধক। যে সকল লেনদেন বিশেষ জাবেদায় অন্তর্ভুক্ত হয় না সে সকল জাবেদা প্রকৃত জাবেদায় অন্তর্ভুক্ত হয়।
১. সংশোধনী জাবেদা : লেনদেন লিপিবদ্ধকরণে কোন ভুল সংঘটিত হলে তা সংশোধন করতে হয়। ভুল সংশোধনের জন্য যে জাবেদা দাখিলা প্রদান করা হয় তাই সংশোধনী জাবেদা।
২. সমন্বয় জাবেদা : আর্থিক বিবরণী প্রস্তুতের সময় অলিখিত এবং অসমন্বিত দফা অন্তর্ভুক্তির জন্য যে জাবেদা প্রদান করা হয় তাই সমন্বয় জাবেদা।
৩. সমাপনী জাবেদা : কোন নির্দিষ্ট বছরের মুনাফা জাতীয় আয় ও ব্যয় হিসাবসমূহ বন্ধ করার জন্য যে জাবেদা প্রদান করা হয় তাই সমাপনী জাবেদা।
৪. প্রারম্ভিক জাবেদা : ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান একটি চলমান প্রক্রিয়া। বিগত বছরের হিসাবকালের শেষ দিনের সম্পদ, দায় ও স্বত্বাধিকারের পরিমাণ পরবর্তী বছরের শুরুতে হিসাবে নিয়ে আসার জন্য প্রারম্ভিক দাখিলা প্রদান করা হয়।
 বাট্টা ও বাট্টার প্রকারভেদ
সাধারণ অর্থে, কোনো বস্তুর নির্ধারিত মূল্য অপেক্ষা কম মূল্যে ক্রয় সম্ভব হলে, যতটুকু মূল্য কম পরিশোধ করা হল, তাই বাট্টা। ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে এই বাট্টা দেওয়া ও পাওয়া উভয়ই হয়ে থাকে।

কারবারি বাট্টা : বিক্রেতা পণ্যের বিক্রয় মূল্য নির্ধারণ করে। বিক্রয় বৃদ্ধির জন্য বিক্রেতা যখন পূর্ব নির্ধারিত বিক্রয় মূল্য অপেক্ষা কম মূল্যে পণ্য বিক্রয় করে তা কারবারি বাট্টা হিসেবে গণ্য করা হয়। কারবারি বাট্টা বিক্রেতার জন্য বিক্রয় বাট্টা এবং ক্রেতার জন্য ক্রয় বাট্টা।
নগদ বাট্টা : ক্রেতা-বিক্রেতার মাঝে দেনা-পাওনার দ্রæত নিষ্পত্তির জন্য বিক্রেতা ক্রেতাকে যে টাকা ছাড় দেয় তাই নগদ বাট্টা। এই বাট্টা বিক্রেতার জন্য প্রদত্ত বাট্টা এবং ক্রেতার জন্য প্রাপ্ত বাট্টা। উভয়পক্ষ তাদের হিসাবের বইতে এই বাট্টা লিপিবদ্ধ করে থাকে।

অনুশীলনীর সৃজনশীল প্রশ্ন ও সমাধান

প্রশ্ন -১  জনাব আফরোজা আক্তার একজন কাপড় ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে তার প্রতিষ্ঠানে নিম্নোক্ত লেনদেনসমূহ সংঘটিত হয়েছেÑ
ডিসেম্বর ১ ৫% বাট্টা জনাব মাহমুদের নিকট হতে ১০,০০০ টাকা মূল্যের পণ্য ক্রয়। চালান নং-৭৮।
ডিসেম্বর ৩ নগদে বিক্রয় ১২,০০০ টাকা।
ডিসেম্বর ৮ মাহমুদকে পণ্য ফেরত প্রদান ১,০০০ টাকা। ডেবিট নোট নং-১২৩।
ডিসেম্বর ১০ পুরাতন আসবাবপত্র মেরামত ৫০০ টাকা।
ডিসেম্বর ১৫ জনাব নজরুল ইসলামের নিকট হতে ২০,০০০ টাকার পণ্য ক্রয়। চালান নং -১০৯।
ডিসেম্বর ২০ মাহমুদকে পরিশোধ ৪, ০০০ টাকা।
]
ক. ডিসেম্বর ৮ তারিখের লেনদেনের ভিত্তিতে একটি ডেবিট নোট প্রস্তুত কর।
খ. উপরোক্ত লেনদেনের ভিত্তিতে জনাব আফরোজা আক্তারের ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর।
গ. ক্রয় জাবেদা সংশ্লিষ্ট লেনদেন ব্যতিত অবশিষ্ট লেনদেনের সাধারণ জাবেদা দাখিলা দাও।
 ১নং প্রশ্নের সমাধান 
ক.
ডেবিট নোট নং – ১২৩ জনাব আফরোজা আক্তার তারিখ : ৮ ডিসেম্বর ২০১৮
ডেবিট নোট
প্রাপকের নাম : জনাব মাহমুদ
ঠিকানা :
সূত্র : ক্রয়/চালান নম্বর -৭৮/১ ডিসেম্বর ২০১৮
ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১ ১,০০০ টাকার পণ্য ফেরত পাঠানো হলো। অনুগ্রহপূর্বক উক্ত পণ্যের মূল্য আমাদের হিসাবখাত হতে বাদ দিবেন।
১,০০০

১,০০০
টাকা (কথায়) : এক হাজার টাকা মাত্র।

বি. দ্র. ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। ক্রয় ব্যবস্থাপক
খ. জনাব আফরোজা আক্তারের
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
ডিসেম্বর ০১ জনাব মাহমুদ ৭৮  ৯,৫০০
” ১৫ জনাব নজরুল ইসলাম ১০৯  ২০,০০০
২৯,৫০০
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ২৯,৫০০ টাকা।
গ. জনাব আফরোজা আক্তারের
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
ডিসেম্বর ৩ নগদান হিসাব ডেবিট ১২,০০০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১২,০০০
(নগদে পণ্য বিক্রয় করা হলো।)
” ৮ পাওনাদার (মাহমুদ) হিসাব ডেবিট ১,০০০
ক্রয় ফেরত হিসাব ক্রেডিট ১,০০০
(ক্রয়কৃত পণ্য মাহমুদকে ফেরত পাঠানো হলো।)
” ১০ মেরামত হিসাব ডেবিট ৫০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫০০
(নগদে মেরামত খরচ প্রদান করা হলো।)
” ২০ পাওনাদার (মাহমুদ) হিসাব ডেবিট ৪,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ৪,০০০
(পাওনাদার মাহমুদকে নগদে পরিশোধ করা হলো।)
মোট ১৭,৫০০ ১৭,৫০০
উত্তর : সাধারণ জাবেদার যোগফল ১৭,৫০০ টাকা।
প্রশ্ন -২ ল্ফ জনাব বাহাউদ্দিনের ব্যবসায়ের ২০১৮ সালের মে মাসে নিম্নোক্ত লেনদেন সংঘটিত হয়েছেÑ
মে ২ ব্যবসায়ের জন্য ব্যাংক হতে উত্তোলন ১৫,০০০ টাকা।
মে ৩ রমিজের নিকট ৫% বাট্টায় ১০,০০০ টাকার পণ্য বিক্রয়। চালান নং-১৭৩।
মে ৫ ভাড়া অগ্রিম পরিশোধ ৩,০০০ টাকা।
মে ৮ পণ্য ক্রয় বাবদ চেক প্রদান ৭,০০০ টাকা।
মে ১০ ৫% বাট্টায় শাহাদাতের নিকট ৯,০০০ টাকার পণ্য বিক্রয়। চালান নং – ১৭৪।
মে ১৫ নগদ উত্তোলন ১,০০০ টাকা।
ক. জনাব বাহাউদ্দিনের মে মাসের বিক্রয় খাতে বাট্টার পরিমাণ কত?
খ. উপর্যুক্ত লেনদেনের ভিত্তিতে বিক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর।
গ. বিক্রয় জাবেদা সংশ্লিষ্ট লেনদেন ব্যতিত অবশিষ্ট লেনদেনের সাধারণ জাবেদা দাখিলা দাও।
 ২নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. জনাব বাহাউদ্দিনের মে মাসের বিক্রয় খাতে বাট্টার পরিমাণ নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
মে ৩ রমিজের নিকট পণ্য বিক্রয় বাবদ প্রদত্ত বাট্টা (১০,০০০  ৫%) ৫০০
” ১০ শাহাদাতের নিকট পণ্য বিক্রয় বাবদ প্রদত্ত বাট্টা (৯,০০০  ৫%) ৪৫০
মোট বিক্রয় খাতে বাট্টার পরিমাণ ৯৫০
উত্তর : জনাব মাহমুদের মে মাসের বিক্রয় খাতে বাট্টার পরিমাণ ৯৫০।
খ. জনাব বাহাউদ্দিনের
বিক্রয় জাবেদা
তারিখ ডেবিট হিসাব খাত চালান নম্বর সূত্র দেনাদার হিসাব ডেবিট
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
মে ৩ রমিজ ১৭৩  ৯,৫০০
” ১০ শাহাদাত ১৭৪  ৮,৫৫০
১৮,০৫০
উত্তর : বিক্রয় জাবেদার যোগফল ১৮,০৫০ টাকা।
গ. জনাব বাহাউদ্দিনের
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
মে ২ নগদান হিসাব ডেবিট ১৫,০০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ১৫,০০০
(ব্যবসায়ের প্রয়োজনে ব্যাংক হতে নগদ অর্থ উত্তোলন করা হলো।)
” ৫ অগ্রিম ভাড়া হিসাব ডেবিট ৩,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ৩,০০০
(অগ্রিম ভাড়া নগদ অর্থে পরিশোধ করা হলো।)
” ৮ ক্রয় হিসাব ডেবিট ৭,০০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৭,০০০
(পণ্য ক্রয় বাবদ চেক প্রদান করা হলো।)
” ১৫ উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,০০০
(মালিকের ব্যক্তিগত প্রয়োজনে কারবার হতে নগদ উত্তোলন করা হলো।)
মোট ২৬,০০০ ২৬,০০০
উত্তর : সাধারণ জাবেদার যোগফল ২৬,০০০ টাকা।
প্রশ্ন -৩ ল্ফ জনাব জীবন চৌধুরী একজন ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের লেনদেনসমূহ নিম্নরূপ :
জানুয়ারি ১ নগদ ২,৫০,০০০ টাকা ও ৬৫,০০০ টাকার কলকব্জা ও যন্ত্রপাতি নিয়ে ব্যবসায় শুরু করা হল।
জানুয়ারি ৫ ৫% বাট্টায় সুবর্না ট্রেডার্সের নিকট ৪৮,০০০ টাকার পন্য বিক্রয়, চালান নং ২০৫।
জানুয়ারি ৮ রাজনের নিকট থেকে ৪১,৫০০ টাকার পন্য ক্রয় করে চেক প্রদান।
জানুয়ারি ১২ সুবর্না ট্রেডার্সকে ৫,০০০ টাকার পন্য ফেরত দেয়া হল। ক্রেডিট নোট নং ১০৯।
জানুয়ারি ১৫ মনিহারি দ্রব্য ক্রয় ১,২০০ টাকা।
জানুয়ারি ১৮ ব্যবসায়ের জন্য আলমারি ক্রয়ের পরিবহন ব্যয় ১,৫০০ টাকা।
জানুয়ারি ২৮ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে পন্য উত্তোলন ৮০০ টাকা।
ক. জনাব জীবন চৌধুরীর প্রারম্ভিক মূলধনের পরিমাণ কত?
খ. জনাব জীবন চৌধুরীর ৫ তারিখের লেনদেন অবলম্বনে একটি চালান তৈরি কর।
গ. জানুয়ারি মাসের ০৮, ১৫, ১৮ ও ২৮ তারিখের লেনদেনগুলো সাধারণ জাবেদায় লিপিবদ্ধ কর।
 ৩নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. জনাব জীবন চৌধুরীর প্রারম্ভিক মূলধন নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
জানুয়ারি ১ নগদ ২,৫০,০০০
কলকব্জা ও যন্ত্রপাতি ৬৫,০০০
প্রারম্ভিক মূলধন ৩,১৫,০০০
উত্তর : জনাব জীবন চৌধুরী প্রারম্ভিক মূলধন ৩,১৫,০০০ টাকা।
খ.
চালান নং- ২০৫ জনাব জীবন চৌধুরী তারিখ : ৫ জানুয়ারি ২০১৮
চালান
ক্রেতার নাম : সুবর্না ট্রেডার্স
ঠিকানা : ………………….
ক্রমিক নং মালের বিবরণ দর (টাকা) পরিমাণ পরিমাণ (টাকা)
১. পণ্য বিক্রয় ৪৮,০০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% ২,৪০০
৪৫,৬০০
টাকা (কথায়) : পঁয়তাল্লিশ হাজার ছয়শত টাকা মাত্র।
বিক্রয় শর্ত :…………………… 
বি. দ্র: ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য । বিক্রেতার স্বাক্ষর

গ. জনাব জীবন চৌধুরীর
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
জানুয়ারি ৮ ক্রয় হিসাব ডেবিট ৪১,৫০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৪১,৫০০
(পণ্য ক্রয় করে রাজনকে চেক প্রদান করা হলো।)
” ১৫ মনিহারি হিসাব ডেবিট ১,২০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,২০০
(নগদে মনিহারি দ্রব্য ক্রয় করা হলো।)
” ১৮ আসবাবপত্র হিসাব ডেবিট ১,৫০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,৫০০
(ব্যবসায়ের জন্য আলমারি ক্রয়ের পরিবহন ব্যয় নগদে প্রদান করা হলো।)
” ২৮ উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৮০০
ক্রয় হিসাব ক্রেডিট ৮০০
(মালিকের ব্যক্তিগত প্রয়োজনে পণ্য উত্তোলন করা হলো।)
মোট ৪৫,০০০ ৪৫,০০০
উত্তর : সাধারণ জাবেদার যোগফল ৪৫,০০০ টাকা।
প্রশ্ন -৪ ল্ফ মি. খান কম্পিউটার ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের জুলাই মাসে তাঁর ব্যবসায়ের লেনদেন সমূহ নিম্নরূপ :
জুলাই ৫ মাহি কম্পিউটারস থেকে প্রতিটি ৩৬,০০০ টাকা দরে ৮টি কম্পিউটার ক্রয় করেন, কারবারি বাট্টা ৬%, চালান নং ৫০৯, বহন খরচ ১,৫০০ টাকা।
জুলাই ১৫ রাজু কম্পিউটারস থেকে প্রতিটি ৪০,০০০ টাকা দরে ৬টি কম্পিউটার ক্রয় করেন, চালান নং ৩১১। কারবারি বাট্টা ৫%, প্যাকিং খরচ ৫০০ টাকা।
জুলাই ২০ কম্পিউটার নষ্ট থাকায় ৩টি কম্পিউটার রাজু কম্পিউটারসকে ফেরত দেয়া হল- ডেবিট নোট নং ৫০১।
ক. জুলাই মাসে মি. খানের মাল ক্রয় সংক্রান্ত আনুসাঙ্গিক খরচের পরিমাণ কত?
খ. জুলাই মাসের তথ্য অবলম্বনে একটি ডেবিট নোট তৈরি কর।
গ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে মি. খানের একটি ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর।
 ৪নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. জুলাই মাসের ক্রয় সংক্রান্ত আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
জুলাই ৫ বহন খরচ ১,৫০০
” ১৫ প্যাকিং খরচ ৫০০
মোট আনুষঙ্গিক খরচ ২,০০০
উত্তর : আনুষাঙ্গিক খরচ ২০০০ টাকা।
খ.
ডেবিট নোট নং- ৫০১ মি. খান তারিখ : ২০ জুলাই ২০১৮
ডেবিট নোট
প্রাপকের নাম : রাজু কম্পিউটারস
ঠিকানা : …………………..
সূত্র : ক্রয়/চালান নং ৩১১/ ১৫ জুলাই ২০১৮

ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১ প্রতিটি ৪০,০০০ টাকা দরে ৩টি কম্পিউটার নষ্ট থাকায় ফেরত পাঠানো হলো। অনুগ্রহপূর্বক ৩টি কম্পিউটারের মূল্য আমাদের হিসাব হতে বাদ দিবেন।
১,২০,০০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% ৬,০০০
১,১৪,০০০
টাকা (কথায়) : এক লক্ষ চৌদ্দ হাজার টাকা মাত্র।

বি. দ্র. ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। ক্রয় ব্যবস্থাপক
গ. মি. খানের
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
জুলাই ৫ মাহি কম্পিউটারস (নোট-১) ৫০৯  ২,৭২,২২০
” ১৫ রাজু কম্পিউটারস (নোট-২) ৩১১  ২,২৮,৫০০
৫,০০,৭২০
নোট-১
মাহি কম্পিউটারস
৩৬,০০০  ৮ = ২,৮৮,০০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৬% = ১৭,২৮০
= ২,৭০,৭২০
যোগ : বহন খরচ = ১,৫০০
২,৭২,২২০ নোট-২
রাজু কম্পিউটারস
৪০,০০০  ৬ = ২,৪০,০০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% = ১২,০০০
= ২,২৮,০০০
যোগ : প্যাকিং খরচ = ৫০০ ২,২৮,৫০০
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ৫,০০,৭২০ টাকা।

প্রশ্ন -৫ ল্ফ মি. খান একজন ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের লেনদেনসমূহ নিম্নরূপ :
জানুয়ারি ১ জনি ট্রেডার্সের নিকট হতে প্রতি পাউন্ড ১০০ টাকা দরে ৪০০ পাউন্ড চা ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৫%। চালান নং-৫০। শর্ত ঃ ৩/১৫, নিট-৩০। বহন খরচ ৭০০ টাকা।
” ১০ জাফর ব্রাদার্সের নিকট হতে প্রতি লিটার ২০০ টাকা করে ৩০০ লিটার সয়াবিন তেল ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৫%। চালান নং-১১০। শর্ত ঃ ৩/১০, নিট ২০। প্যাকিং খরচ ১,২০০ টাকা।
” ২০ জনি ট্রেডার্সকে প্রতি পাউন্ড ১০০ টাকা দরে ৫০ পাউন্ড চা পাতা নমুনা মাফিক না হওয়ায় ফেরত পাঠানো হল। ডেবিট নোট নং-১১৮।
ক. জানুয়ারি মাসে মি. খানের মাল ক্রয় সংক্রান্ত আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ কত? ২
খ. জানুয়ারি মাসের তথ্য অবলম্বনে একটি ডেবিট নোট তৈরি কর। ৪
গ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে মি. খানের একটি ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
 ৫নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. মি. খানের মাল ক্রয় সংক্রান্ত আনুষাঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
জানু. ১ বহন খরচ ৭০০
” ১০ প্যাকিং খরচ ১,২০০
মোট আনুষঙ্গিক খরচ ১,৯০০
উত্তর : জানুয়ারি মাসে মি. খানের ক্রয় সংক্রান্ত আনুষঙ্গিক খরচ ১,৯০০ টাকা।
খ.
ডেবিট নোট নং : ১১৮ মি. খান তারিখ : ২০ জানুয়ারি ২০১৮
ডেবিট নোট
প্রাপকের নাম : জনি ট্রেডার্স
ঠিকানা : …………………
সূত্র : ক্রয়/চালান নম্বর ৫০/ ১ জানুয়ারি ২০১৮
ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১ প্রতি পাউন্ড ১০০ টাকা দরে ৫০ পাউন্ড চা পাতা নমুনা মাফিক না হওয়ায় ফেরত পাঠানো হল। অনুগ্রহপূর্বক ৫০ পাউন্ড চায়ের মূল্য আমাদের হিসাব খাত হতে বাদ দিবেন।
৫,০০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% ২৫০
৪,৭৫০
টাকা (কথায়) : চার হাজার সাতশত পঞ্চাশ টাকা মাত্র। 
বি. দ্র. ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। ক্রয় ব্যবস্থাপক
গ. মি. খানের
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
জানু. ১ জনি ট্রেডার্স (নোট : ১) ৩/১৫, নিট ৩০ ৫০  ৩৮,৭০০
” ১০ জাফর ব্রাদার্স (নোট : ২) ৩/১০, নিট ২০ ১১০  ৫৮,২০০
৯৬,৯০০
নোট : ১ নোট : ২
জনি ট্রেডার্স জাফর বাদ্রার্স
ক্রয়মূল্য (১০০  ৪০০) = ৪০,০০০ ক্রয়মূল্য (২০০  ৩০০) = ৬০,০০০
বাদ : বাট্টা ৫% = ২,০০০ বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% = ৩,০০০
= ৩৮,০০০ = ৫৭,০০০
যোগ : বহন খরচ = ৭০০ যোগ : প্যাকিং খরচ = ১,২০০
নিট ক্রয় ৩৮,৭০০ নিট ক্রয় ৫৮,২০০
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ৯৬,৯০০ টাকা।
প্রশ্ন -৬ ল্ফ বগুড়ার সুপরা ট্রেডার্স ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে নিম্নলিখিত ব্যবসায়িক কার্যাদি সম্পাদন করেন :
এপ্রিল ১ রংপুরের তিস্তা ট্রেডার্সের নিকট ১০০ টাকা দরে ২৫০ কেজি গুঁড়া দুধ বিক্রয় করেন। কারবারি বাট্টা ১০% চালান নং-৩০।
” ১৩ রাজশাহীর মুন্না ট্রেডার্সের নিকট প্রতি ডজন ১২,০০০ টাকা দরে ২ ডজন গুঁড়া দুধের টিন বিক্রয় করেন। বিমা খরচ ১০০ টাকা। কারবারি বাট্টা ১০%।
” ২৫ জয়পুরহাটের রিতা ট্রেডার্সের নিকট ১৫০ কেজি সবজি ২০ টাকা দরে বিক্রয় করেন। চালান নং-৪০। প্যাকিং খরচ ৫০ টাকা।
ক. সপুরা ট্রেডার্সের মোট আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় কর। ২
খ. এপ্রিল ২৫ তারিখের লেনদেনের সাহায্যে একটি চালান তৈরি কর। ৪
গ. এপ্রিল ১ ও ১৩ তারিখের লেনদেনগুলো অবলম্বনে বিক্রয় জাবেদা তৈরি কর। ৪
 ৬নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. সপুরা ট্রেডার্সের মোট আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
এপ্রিল ১৩ বিমা খরচ ১০০
” ২৫ প্যাকিং খরচ ৫০
মোট আনুষঙ্গিক খরচ ১৫০
উত্তর : সুপরা ট্রেডার্সের মোট আনুষঙ্গিক খরচ ১৫০ টাকা।
খ.
চালান নং : ৪০ সপুরা ট্রেডার্স তারিখ : ২৫ এপ্রিল ২০১৮
বগুড়া
চালান
ক্রেতার নাম : রিতা ট্রেডার্স
ঠিকানা : জয়পুরহাট
ক্রমিক নং মালের বিবরণ দর (টাকা) পরিমাণ পরিমাণ (টাকা)
১. সবজি ২০ ১৫০ কেজি ৩,০০০
যোগ : প্যাকিং খরচ ৫০
৩,০৫০
টাকা (কথায়) : তিন হাজার পঞ্চাশ টাকা মাত্র।
বিক্রয় শর্ত : …………………..
থথথথথথথথথথথ
বি.দ্র. ভুলত্রæটি সংশোধনযোগ্য। বিক্রেতার স্বাক্ষর
গ. সপুরা ট্রেডার্সের
বিক্রয় জাবেদা
তারিখ ডেবিট হিসাব খাত চালান নম্বর সূত্র দেনাদার হিসাব ডেবিট
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
এপ্রিল ১ তিস্তা ট্রেডার্স (নোট-১) ৩০  ২২,৫০০
” ১৩ মুন্না ট্রেডার্স (নোট- ২)  ২১,৭০০
৪৪,২০০

নোট : ১ নোট : ২
তিস্তা ট্রেডার্স মুন্না ট্রেডার্স
১০০  ২৫০ = ২৫,০০০ ১,২০০  ২ ২৪,০০০
বাদ : কারিগরি বাট্টা ১০% ৬৩০ বাদ : কারবারি বাট্টা ১০% ২,৪০০
১১,৯৭০ ২১,৬০০
যোগ : বিমা খরচ ১০০
২১,৭০০
উত্তর : বিক্রয় জাবেদার যোগফল ৪৪,২০০ টাকা।
প্রশ্ন -৭ ল্ফ জনাব নাজিম কিশোরগঞ্জের একজন পাইকারী ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের জুলাই মাসে তার প্রতিষ্ঠানে নিম্নোক্ত লেনদেনসমূহ সংঘটিত হয়েছে :
জুলাই-৭ মুন এর নিকট ৭% বাট্টায় ১৫,০০০ টাকার পণ্য বিক্রয়। চালান নং-১৮৫।
১৩ মনিহারি দ্রব্য ক্রয় ১,২০০ টাকা।
১৮ রমিজা ট্রেডার্সের নিকট ২১২% বাট্টায় ২০,০০০ টাকার পণ্য বিক্রয়। চালান নং – ১৯৮

২০ ব্যাংকে জমা দেয়া হলো ২৫,০০০ টাকা।

ক. জুলাই ১৩ তারিখের লেনদেনের সাহায্যে একটি ডেবিট ভাউচার তৈরি কর। ২
খ. উপর্যুক্ত লেনদেনের ভিত্তিতে বিক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
গ. জনাব নাজিমের লেনদেনসমূহ সাধারণ জাবেদায় লিপিবদ্ধ কর। ৪
 ৭নং প্রশ্নের সমাধান 
ক.
জনাব নাজিম
কিশোরগঞ্জ
ডেবিট ভাউচার
তারিখ : ১৩ জুলাই, ২০১৮
ডেবিট ভাউচার নম্বর : ……………… গ্রহণকারীর নাম : ………………
হিসাব খাতের নাম : ক্রয় ঠিকানা : …………………
ক্রমিক নং খরচের বিবরণ টাকা
১ মনিহারি দ্রব্য ক্রয় ১,২০০

১,২০০
টাকা (কথায়) : এক হাজার দুইশত টাকা মাত্র।
থথথথথথথথথথথথথথ থথথথথথথথথথথথথথথ থথথথথথথথথথথথথ থথথথথথথথথথথ
ক্যাশিয়ারের স্বাক্ষর হিসাবরক্ষকের স্বাক্ষর ব্যবস্থাপকের স্বাক্ষর গ্রহীতার স্বাক্ষর
খ. জনাব নাজিমের
বিক্রয় জাবেদা
তারিখ ডেবিট হিসাব খাত চালান নম্বর সূত্র দেনাদার হিসাব ডেবিট
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
জুলাই ৭ মুন ১৮৫  ১৩,৯৫০
” ১৮ রমিজা ট্রেডার্স ১৯৮  ১৯,৫০০
৩৩,৪৫০
উত্তর : জনাব নাজিমের বিক্রয় জাবেদার যোগফল ৩৩,৪৫০ টাকা।
গ. জনাব নাজিমের
জাবেদা (সাধারণ)
ক্রমিক নং হিসাবের শিরোনাম খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
জুলাই ৭ দেনাদার হিসাব ডেবিট ১৩,৯৫০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১৩,৯৫০
(মুন এর নিকট ৭% বাট্টায় বিক্রয় করা হলো।)
” ১৩ মনিহারি হিসাব ডেবিট ১,২০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,২০০
(মনিহারি দ্রব্য ক্রয় করা হলো।)
” ১৮ দেনাদার হিসাব ডেবিট ১৯,৫০০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১৯,৫০০
(রমিজা ট্রেডার্সের নিকট ২৫% বাট্টায় পণ্য বিক্রয় করা হলো।)
” ২০ ব্যাংক হিসাব ডেবিট ২৫,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ২৫,০০০
(ব্যাংক জমা দেয়া হলো।)
মোট ৫৯,৭০০ ৫৯,৭০০
উত্তর : জনাব নাজিমের জাবেদার যোগফল ৫৯,৭০০ টাকা।
প্রশ্ন -৮ ল্ফ মনির ব্যবসায়ে ২০১৮ সালের মার্চ মাসে নিম্নলিখিত লেনদেনগুলো সংঘটিত হয়েছে :
মার্চ ১ মি. ইমনের নিকট থেকে প্রতি কেজি ৭০ টাকা দরে ১৮০ কেজি চাউল ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৫% চালান নং ২১০, শর্ত ৩/১০, নিট ১৫, বহন খরচ ৮০০ টাকা।
” ২০ লিমন স্টোর এর নিকট প্রতিটি ৫,০০০ টাকা মূল্যে দুইটি ফ্যান বিক্রয়।
” ৩০ মিস রাইচার নিকট হতে প্রতি প্যাকেট ৪৫০ টাকা ধরে ১০০ প্যাকেট চা ক্রয় এবং প্রতি কৌটা ৬০ টাকা দরে ১৫০ কৌটা কনডেন্স মিল্ক ক্রয়। কারবারি বাট্টা ১০%, চালান নং ৩০৬, শর্ত ৫/১৫, নিট ২০, প্যাকিং খরচ ৪৫০ টাকা।
ক. আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় কর। ২
খ. ২০ তারিখের লেনদেন দ্বারা একটি চালান তৈরি কর। ৪
গ. উপর্যুক্ত তথ্যাবলির আলোকে মনির ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
 ৮নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ নির্ণয় :
বিবরণ টাকা টাকা
বহন খরচ ৮০০
ব্যাকিং খরচ ৪৫০
মোট আনুষঙ্গিক খরচ ১,২৫০
উত্তর : মনির ব্যবসায়ের আনুষঙ্গিক খরচ ১,২৫০ টাকা।
খ.
চালান নং : …………. মনির তারিখ : ২০ মার্চ ২০১৮
চালান
ক্রেতার নাম : লিমন স্টোর
ঠিকানা : …………………
ক্রমিক নং মালের বিবরণ দর (টাকা) পরিমাণ পরিমাণ (টাকা)
১. ফ্যান ৫,০০০ ২টা ১০,০০০

১০,০০০
টাকা (কথায়) : দশ হাজার টাকা মাত্র।
বিক্রয় শর্ত : …………………..
থথথথথথথথথথথ
বি.দ্র. ভুলত্রæটি সংশোধনযোগ্য। বিক্রেতার স্বাক্ষর
গ. মনির
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
মার্চ ১ মি. ইমন (নোট : ১) ৩/১০, নিট ১৫ ২১০ ৩/১০ ১২,৭৭০
” ৩০ মিস রাইচা (নোট : ২) ৫/১৫, নিট ২০ ৩০৬ ৫/১৫ ৪৯,০৫০
৬১,৮২০

নোট : ১ নোট : ২
মি. ইমন মিস রাইচা
৭০  ১৮০ = ১২,৬০০ ৪৫০  ১০০ = ৪৫,০০০
বাদ : বাট্টা ৫% = ৬৩০ ৬০  ১৫০ = ৯,০০০
১১,৯৭০ ৫৪,০০০
যোগ : বহন খরচ = ৮০০ বাদ : বাট্টা ১০% = ৫,৪০০
= ১২,৭৭০ ৪৮,৬০০
যোগ : ব্যাকিং খরচ = ৪৫০
৪৯,০৫০
উত্তর : মনির ক্রয় জাবেদার যোগফল ৬১,৮২০ টাকা।
প্রশ্ন -৯ ল্ফ মিঃ সাবাব একজন খুচরা ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের জুন মাসে তাঁর ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে নিম্নোক্ত লেনদেনগুলো সংঘটিত হয় :
জুন- ১ ঃ জনাব রাজার নিকট হতে ৫% বাট্টায় প্রতিটি ৫০ টাকা দরে ৫ ডজন টুথপেস্ট ক্রয়। চালান নং ৬৬।
” ৫ ঃ পুরাতন আসবাবপত্র বিক্রয় ১,৫০০ টাকা।
” ১২ ঃ নগদ উত্তোলন ৪,৫০০ টাকা।
” ১৮ ঃ মিঃ খাজার নিকট হতে প্রতি কেজি ৭০ টাকা দরে ৮০ কেজি ডাল ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৪%। চালান নং ৭২। শর্ত ২/১০ নিট ৩০।
” ২৪ ঃ জনাব রাজার নিকট ১ ডজন টুথপেস্ট ফেরত দেওয়া হলো। ডেবিট নোট নং-৪৪।
” ৩০ ঃ পাওনাদার জনাব রাজাকে পরিশোধ করা হলো ১,২০০ টাকা।
ক. ৪৪নং ডেবিট নোট-এ ফেরতকৃত টাকার পরিমাণ নির্ণয় কর। ২
খ. উপর্যুক্ত লেনদেনসমূহের ভিত্তিতে মিঃ সাবাব-এর ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
গ. ক্রয় জাবেদা সংশ্লিষ্ট লেনদেনগুলো ব্যতিত অন্যান্য লেনদেনসমূহ সাধারণ জাবেদায় লিপিবদ্ধ কর। ৪
 ৯নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. ৪৪ নং ডেবিট নোট-এ ফেরতকৃত টাকার পরিমাণ নির্ণয় :
বিবরণ টাকা টাকা
প্রতিটি ৫০ টাকা ধরে ১ ডজন টুথপেস্ট ফেরত (৫০  ১২) ৬০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% ৩০
ফেরতকৃত টাকার পরিমাণ ৫৭০
উত্তর : ৪৪নং ডেবিট নোট এ ফেরত ৫৭০ টাকা।
খ. মি. সাবাব-এর
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান
নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব
পাওনাদার হিসাব ডেবিট
ক্রেডিট
২০১৮
জুন ১
জনাব রাজা
৬৬

২,৮৫০
” ১৮ মি. খাজা ২/১০, নিট ৩০ ৭২  ৫,৩৭৬
৮,২২৬
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ৮,২২৬ টাকা।
গ. মি. সাবাব-এর
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট
২০১৮
জুন-৫
নগদান হিসাব ডেবিট
আসবাবপত্র হিসাব ক্রেডিট
(পুরাতন আসবাবপত্র বিক্রয় করা হলো।)
১,৫০০

১,৫০০
” ১২ উত্তোলন হিসাব ডেবিট
নগদান হিসাব ক্রেডিট
(নগদ উত্তোলন করা হলো।) ৪,৫০০
৪,৫০০
” ২৪ পাওনাদার (রাজা) হিসাব ডেবিট
ক্রয় ফেরত হিসাব ক্রেডিট
(জনাব রাজার নিকট ক্রয়কৃত টুথপেস্ট ফেরত দেয়া হলো।) ৫৭০
৫৭০
” ৩০ পাওনাদার (রাজা) হিসাব ডেবিট
নগদান হিসাব ক্রেডিট
(পাওনাদার রাজাকে পরিশোধ করা হলো।) ১,২০০
১,২০০
মোট ৭,৭০০ ৭,৭০০
উত্তর : মি. সাবার সাধারণ জাবেদার যোগফল ৭,৫০০ টাকা।

প্রশ্ন -১০ ল্ফ শচীন কর্মকার একজন ব্যবসায়ী। ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে তাঁর ব্যবসায়ে নিম্নোক্ত লেনদেনসমূহ সংঘটিত হয়েছিল-
এপ্রিল ১ দেনাদার হতে চেক প্রাপ্তি যা সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকে জমা দান ৮,০০০ টাকা।
এপ্রিল ৩ মারুফের নিকট হতে ঋণ গ্রহণ ২০,০০০ টাকা।
এপ্রিল ৫ আন্তঃফেরত ৫০০ টাকা।
এপ্রিল ৮ পুরাতন আসবাবপত্র বিক্রয় ২,০০০ টাকা।
এপ্রিল ১০ দেনাদারের ১,০০০ টাকা আদায়যোগ্য নয়।
এপ্রিল ১২ ব্যাংক কর্তৃক প্রদেয় বিলের অর্থ পরিশোধ ৩,০০০ টাকা।
এপ্রিল ১৫ অফিসের জন্য চেয়ার ও টেবিল ক্রয় ৭,০০০ টাকা।
এপ্রিল ১৮ বিনিয়োগের সুদ আদায় হলো ১,০০০ টাকা।
এপ্রিল ২০ কমিশন অনাদায়ী ৬০০ টাকা।
এপ্রিল ২২ ব্যাংক হতে উত্তোলন ৪,০০০ টাকা।
এপ্রিল ২৫ পাওনাদারকে চেকে পরিশোধ ৬,৫০০ টাকা এবং বাট্টা প্রাপ্তি ৫০০ টাকা।
এপ্রিল ৩০ আসবাবপত্রের উপর অবচয় ধার্য কর ৮০০ টাকা।
ক. ব্যাংক জমাতিরিক্তের পরিমাণ নির্ণয় কর। ২
খ. নগদ লেনদেনসমূহের জাবেদা দাখিলা দেখাও। ৪
গ. অনগদ লেনদেনসমূহকে হিসাবের প্রাথমিক বইতে লিপিবদ্ধ কর। ৪
 ১০নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. ব্যাংক জমাতিরিক্তের পরিমাণ নির্ণয় করণ :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
এপ্রিল ১ দেনাদার হাতে চেক পেয়ে ব্যাংকে জমা ৮,০০০
” ১২ বাদ : ব্যাংক কর্তৃক প্রদেয় অর্থ পরিশোধ ৩,০০০
৫,০০০
” ২২ বাদ : ব্যাংক হতে উত্তোলন ৪,০০০
১,০০০
” ২৫ বাদ : পাওনাদারকে চেকে পরিশোধ ৬,৫০০
ব্যাংক জমাতিরিক্ত (৫,৫০০)
উত্তর : ব্যাংক জমাতিরিক্ত পরিমাণ ৫,৫০০ টাকা।
খ. শচীন কর্মকারের
জাবেদা (নগদ লেনদেনসমূহের)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
এপ্রিল ৩ নগদান হিসাব ডেবিট ২০,০০০
মারুফের ঋণ হিসাব ক্রেডিট ২০,০০০
(মারুফের নিকট থেকে ঋণ গ্রহণ)
” ৮ নগদান হিসাব ডেবিট ২,০০০
আসবাবপত্র হিসাব ক্রেডিট ২,০০০
(পুরাতন আসবাবপত্র বিক্রয়)
” ১৫ আসবাবপত্র হিসাব ডেবিট ৭,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ৭,০০০
(অফিসের জন্য চেয়ার ও টেবিল ক্রয়)
” ১৮ নগদান হিসাব ডেবিট ১,০০০
বিনিয়োগের সুদ হিসাব ক্রেডিট ১,০০০
(বিনিয়োগের সুদ আদায় হলো।)
” ২২ নগদান হিসাব ডেবিট ৪,০০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৪,০০০
(ব্যাংক হতে উত্তোলন।)
মোট ৩৪,০০০ ৩৪,০০০
উত্তর : জাবেদার যোগফল ৩৪,০০০ টাকা।
গ. শচীন কর্মকারের
জাবেদা (অনগদ লেনদেনসমূহের)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
এপ্রিল ১ ব্যাংক হিসাব ডেবিট ৮,০০০
দেনাদার হিসাব ক্রেডিট ৮,০০০
(দেনাদারের নিকট থেকে চেক পেয়ে ব্যাংকে জমাদান)
” ৫ আন্তঃফেরত ডেবিট ৫০০
দেনাদার হিসাব ক্রেডিট ৫০০
(ধারে বিক্রীত পণ্য ফেরত আসল)
” ১০ অনাদায়ী পাওনা হিসাব ডেবিট ১,০০০
দেনাদার হিসাব ক্রেডিট ১,০০০
(দেনাদারের কাছ থেকে আদায়যোগ্য নয়)
” ১২ প্রদেয় বিল হিসাব ডেবিট ৩,০০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৩,০০০
(ব্যাংক কর্তৃক প্রদেয় বিলের অর্থ পরিশোধ করা হলো)
” ২০ কমিশন হিসাব ডেবিট ৬০০
বকেয়া কমিশন হিসাব ক্রেডিট ৬০০
(কমিশন অনাদায়ী রয়েছে)
” ২৫ পাওনাদার হিসাব ডেবিট ৭,০০০
ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৬,৫০০
প্রাপ্ত বাট্টা হিসাব ক্রেডিট ৫০০
(পাওনাদারকে চেকে পরিশোধ এবং বাট্টা প্রাপ্তি)
” ৩০ অবচয় হিসাব ডেবিট ৮০০
পুঞ্জিভুত অবচয় (আসবাবপত্র) হিসাব ক্রেডিট ৮০০
(আসবাবপত্রের অবচয় ধার্য করা হলো)
মোট ২০,৯০০ ২০,৯০০
উত্তর : জাবেদার যোগফল ২০,৯০০ টাকা।
প্রশ্ন -১১ ল্ফ জনাব শাহজাহান ঢাকার কাওরান বাজারের একজন পাইকারি ব্যবসায়ী। তার প্রতিষ্ঠানে ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসের কতিপয় লেনদেন নিম্নরূপ-
নভেম্বর ১ মিলি স্টোরস, ঢাকা এর নিকট প্রতি কেজি ১০০ টাকা করে ৫০ কেজি মুশুর ডাল বিক্রয়। কারবারি বাট্টা ২%। চালান নং ২৫৩। শর্ত : ৩/১০, নিট ২০।
নভেম্বর ৫ জনি ট্রেডার্সের নিকট হতে প্রতি পাউন্ড ২০০ টাকা করে ৫০০ পাউন্ড চা ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৫%। চালান নং-৫৩৩। শর্ত : ৩/১৫, নিট ৩০।
নভেম্বর ৮ রতন স্টোরস এর নিকট প্রতি পাউন্ড ২২০ টাকা করে ১০০ পাউন্ড চা বিক্রয়। বাট্টা ৩%। চালান নং ২৫৪।
নভেম্বর ১২ জাফর ব্রাদার্সের নিকট হতে প্রতি লিটার ১২০ টাকা করে ৩০০ লিটার সয়াবিন তেল ক্রয়। কারবারি বাট্টা ৪%। চালান নং ৫৩৪।
নভেম্বর ১৫ শিকদার এন্ড সন্স এর নিকট প্রতি বস্তা ২,০০০ টাকা করে ১০০ বস্তা আটা বিক্রয়। কারবারি বাট্টা ৩%। চালান নং-২৫৫।
নভেম্বর ২০ রাতœা ট্রেডার্সের নিকট হতে প্রতি প্যাকেট ৩৫০ টাকা করে ৫০ প্যাকেট গুঁড়া দুধ ক্রয়। কারবারি বাট্টা ২% এবং চালান নং ৫৩৫।
ক. নভেম্বর ১ তারিখের ভিত্তিতে একটি চালান প্রস্তুত কর। ২
খ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে জনাব শাহজাহানের একটি ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
গ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে জনাব শাহজাহানের একটি বিক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
 ১১নং প্রশ্নের সমাধান 
ক.
জনাব শাহজাহান তারিখ : ১ নভেম্বর ২০১৮
চালান নং : ২৫৩ কাওরান বাজার
চালান
প্রাপকের নাম : মিলি স্টোরস
ঠিকানা : ………………………………

ক্রমিক নং মালের বিবরণ দর (টাকা) পরিমাণ টাকার পরিমাণ
১ মুশুর ডাল ১০০ ৫০ কেজি ৫,০০০
বাদ : বাট্টা (২%) ১০০
৪,৯০০
টাকা (কথায়) : চার হাজার নয়শত টাকা।
বিক্রয় শর্ত : ৩/১০, নীট ২০।
বি. দ্র. : ভুল ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। বিক্রেতার স্বাক্ষর

খ. জনাব শাহজাহানের
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
নভেম্বর ৫ জনি ট্রেডার্স ৩/১৫, নিট ৩০ ৫৩৩  ৯৫,০০০
” ১২ জাফর ব্রাদার্স ৫৩৪  ৩৪,৫৬০
” ২০ রাতœা ট্রেডার্স ৫৩৫  ১৭,১৫০
১,৬,৭১০
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ১,৪৬,৭১০ টাকা।
গ. জনাব শাহজাহানের
বিক্রয় জাবেদা
তারিখ ডেবিট হিসাবের খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র দেনাদার হিসাব ডেবিট
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
নভেম্বর ১ মিলি স্টোরস ৩/১০, নিট ২০ ২৫৩  ৪,৯০০
” ৮ রতন স্টোরস ২৫৪  ২১,৩৪০
” ১৫ শিকদার এন্ড সন্স ২৫৫  ১,৯৪,০০০
২,২০,২৪০
উত্তর : বিক্রয় জাবেদার যোগফল ২,২০,২৪০ টাকা।
প্রশ্ন -১২ ল্ফ ফাতেমা স্টোরস-এ ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে নিম্নোক্ত ফেরতসমূহ সংঘটিত হয়েছে-
এপ্রিল ৩ রাতুল ট্রেডার্স-এর নিকট হতে প্রাপ্তি প্রতি প্যাকেট ২৫০ টাকা করে ১০ প্যাকেট গুঁড়া দুধ মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় ফেরত পাওয়া গেল। কারবারি বাট্টা ৩%, ক্রেডিট নোট নং-১৬৫।
এপ্রিল ৯ জামান এন্ড সন্স-এর নিকট প্রতি কেজি ৫০ টাকা করে ৪০ কেজি ডিটারজেন্ট নিম্নমানের হওয়ায় ফেরত পাঠানো হলো। কারবারি বাট্টা ২%, ডেবিট নোট নং-১৮৭।
এপ্রিল ১৭ লতিফ স্টোরস-কে প্রতি পাউন্ড ১৭০ টাকা করে ১৫ পাউন্ড চা পাতা নমুনা মাফিক না হওয়ায় ফেরত পাঠানো হলো। ডেবিট নোট নং-১৮৮।
এপ্রিল ২৪ রাশেদ এন্ড ব্রাদার্স-এর নিকট হতে প্রতি ডজন ১৮০ টাকা করে ৬ ডজন সাবান ফরমায়েশ অপেক্ষা বেশি সরবরাহ করায় ফেরত পাওয়া গেল। কারবারি বাট্টা ৪%। ক্রেডিট নোট নং-১৬৬।
ক. এপ্রিল ৩ তারিখের ভিত্তিতে একটি ক্রেডিট নোট প্রস্তুত কর। ২
খ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে ফাতেমা স্টোরস্ এর একটি ক্রয় ফেরত জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
গ. উপর্যুক্ত লেনদেনগুলোর সাহায্যে ফাতেমা স্টোরস্ এর একটি বিক্রয় ফেরত জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
 ১২নং প্রশ্নের সমাধান 
ক.
ক্রেডিট নোট নং- ১৬৫ ফাতেমা স্টোরস তারিখ : ৩ এপ্রিল ২০১৮
ক্রেডিট নোট
প্রাপকের নাম : রাতুল ট্রেডার্স
ঠিকানা : …………………..

ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১. প্রতি প্যাকেট ২৫০ টাকা করে ১০ প্যাকেট গুঁড়া দুধ মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় ফেরত পাওয়া গেল এবং আপনাদের হিসাবকে ফেরত মালের মূল্য দ্বারা ক্রেডিট করা হয়েছে।
২,৫০০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৩% ৭৫
২,৪২৫
টাকা (কথায়) : দুই হাজার চারশত পঁচিশ টাকা মাত্র।
বি. দ্র. : ভুল ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। বিক্রয় ব্যবস্থাপক

খ. ফাতেমা স্টোরস-এর
ক্রয় ফেরত জাবেদা
তারিখ ডেবিট হিসাবের খাত ডেবিট নোট নম্বর সূত্র পাওনাদার হিসাব ডেবিট
ক্রয় ফেরত হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
এপ্রিল ৯ জামান এন্ড সন্স ১৮৭  ১,৯৬০
” ১৭ লতিফ স্টোরস ১৮৮  ২,৫৫০
৪,৫১০
উত্তর : ক্রয় ফেরত জাবেদার যোগফল ৪,৫১০ টাকা।
গ. ফাতেমা স্টোরস-এর
বিক্রয় ফেরত জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাবের খাত ক্রেডিট নোট নম্বর সূত্র বিক্রয় ফেরত হিসাব ডেবিট
দেনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
এপ্রিল ৩ রাতুল ট্রেডার্স ১৬৫  ২,৪২৫
” ২৪ রাশেদ এন্ড ব্রাদার্স ১৬৬  ১,০৩৭
৩,৪৬২
উত্তর : বিক্রয় ফেরত জাবেদার যোগফল ৩,৪৬২ টাকা।

প্রশ্ন -১৩ ল্ফ জনাব সৈকত ১ জানুয়ারি ২০১৮ সালে নগদ ৮০,০০০ টাকা; ১,০০,০০০ টাকার যন্ত্রপাতি; ৩০,০০০ টাকার আসবাবপত্র নিয়ে ব্যবসায় আরম্ভ করেন। উক্ত মাসের লেনদেনসমূহ নিম্নরূপÑ
জানুয়ারি ৩ কমিশন প্রদান করা হলো ১০০ টাকা।
জানুয়ারি ৯ জনাব সাইফুলের নিকট মোট বিক্রয় ১,৫০,০০০ টাকা (ধারে ৭০,০০০ টাকা)। কারবারি বাট্টা ৫%। চালান নং ৩০৫।
জানুয়ারি ১২ ৭% কারবারি বাট্টায় ১৮,০০০ টাকার পণ্য ক্রয় করা হলো।
জানুয়ারি ২০ জনাব সৈকত ব্যবসায়ে ১০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করেন।
জানুয়ারি ২৩ নিম্নমানের কারণে জনাব সাইফুলের নিকট হতে ১৭,০০০ টাকার পণ্য ফেরত আসল। ক্রেডিট নোট নং ৪০৩।
ক. জনাব সৈকতের প্রারম্ভিক মূলধনের পরিমাণ কত? ২
খ. জানুয়ারির ২৩ তারিখের লেনদেনের ভিত্তিতে একটি ক্রেডিট নোট প্রস্তুত কর। ৪
গ. জানুয়ারি মাসের ৩ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত লেনদেনসমূহ সাধারণ জাবেদায় লিপিবদ্ধ কর। ৪
 ১৩নং প্রশ্নের সমাধান 
ক. জনাব সৈকতের প্রারম্ভিক মূলধনের পরিমাণ নির্ণয় :
তারিখ বিবরণ টাকা টাকা
২০১৮
জানুয়ারি ১ নগদ ৮০,০০০
যন্ত্রপাতি ১,০০,০০০
আসবাবপত্র ৩০,০০০
মোট প্রারম্ভিক মূলধন ২,১০,০০০
উত্তর : জনাব সৈকতের প্রারম্ভিক মূলধনের পরিমাণ ২,১০,০০০ টাকা।
খ.
ক্রেডিট নোট নং- ৪০৩ জনাব সৈকত তারিখ : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮
ক্রেডিট নোট
প্রাপকের নাম : জনাব সাইফুল
ঠিকানা : ………
সূত্র : …………………..
ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১ ১৭,০০০ টাকা মূল্যের পণ্য নিম্নমানের হওয়ায় ফেরত পাওয়া গেছে এবং আপনাদের হিসাব খাতকে ফেরত মালের মূল্য দ্বারা ক্রেডিট করা হয়েছে।
১৭,০০০

১৭,০০০
টাকা (কথায়) : সতের হাজার টাকা মাত্র।

বি. দ্র. ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। বিক্রয় ব্যবস্থাপক
গ. জনাব সৈকতের
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
জানুয়ারি ৩ কমিশন হিসাব ডেবিট ১০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১০০
(নগদে কমিশন প্রদান করা হলো।)
” ৯ নগদান হিসাব ডেবিট ৭২,৫০০
দেনাদার (সাইফুল) হিসাব ডেবিট ৭০,০০০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১,৪২,৫০০
(৫% বাট্টায় নগদে এবং ধারে পণ্য বিক্রয় করা হলো।)
” ১২ ক্রয় হিসাব ডেবিট ১৬,৭৪০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ১৬,৭৪০
(৭% বাট্টায় নগদে পণ্য ক্রয় করা হলো।)
” ২০ নগদান হিসাব ডেবিট ১০,০০০
মূলধন হিসাব ক্রেডিট ১০,০০০
(নগদ অর্থ মূলধন স্বরূপ বিনিয়োগ করা হলো।)
মোট ১,৬৯,৩৪০ ১,৬৯,৩৪০
উত্তর : সাধারণ জাবেদার যোগফল ১,৬৯,৩৪০ টাকা।
প্রশ্ন -১৪ ল্ফ ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি তারিখে ঢাকার আসবাবপত্র সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘তালুকদার ফার্নিচার্স’ নগদ ১০,০০০ টাকা ও ৫০,০০০ টাকার আসবাবপত্র নিয়ে ব্যবসায় আরম্ভ করলেন। উক্ত মাসের অন্যান্য লেনদেনগুলো ছিল নিম্নরূপ :
জানুয়ারি ২ খুলনা আলম ফার্নিচারের নিকট থেকে ৩০০ টাকা দরে ৫টি চেয়ার ক্রয় করা হলো। চালান নং  ১৪২।
জানুয়ারি ৩ খুলনার মোর্শেদ ফার্নিচারের নিকট হতে প্রতিটি ৮০০ টাকা দরে ৩টি টেবিল এবং প্রতিটি ২৮০ টাকা দরে ৭টি চেয়ার ক্রয় করা হলো। কারবারি বাট্টা ৫%। চালান নং – ১৪৭।
জানুয়ারি ৪ পরিবহন খরচ প্রদত্ত হলো ৩০০ টাকা।
জানুয়ারি ৭ নমুনা অনুযায়ী না হওয়ায় মোর্শেদ এন্ড সন্সের নিকট ১টি টেবিল ও ২টি চেয়ার ফেরত পাঠানো হলো। ডেবিট নোট নং – ১২৯
জানুয়ারি ১০ জিয়ার নিকট নগদে ৩৫০ টাকা দরের ৫টি চেয়ার বিক্রয়।
জানুয়ারি ১৭ রহিমের নিকট ২টি টেবিল বিক্রয় ৩,০০০ টাকা।
জানুয়ারি ২৫ মিস্ত্রিদের মজুরি দেয়া হলো ২,০০০ টাকা।
ক. জানুয়ারির ৭ তারিখের লেনদেনের ভিত্তিতে একটি ডেবিট নোট প্রস্তুত কর। ২
ক. উপরিউক্ত লেনদেনের ভিত্তিতে তালুকদার ফার্নিচার্সের ক্রয় জাবেদা প্রস্তুত কর। ৪
গ. জানুয়ারির ২, ৩ ও ৭ তারিখ ব্যতীত অন্যান্য লেনদেনের জন্য জাবেদা বই প্রস্তুত কর। ৪
 ১৪নং প্রশ্নের সমাধান 
ক.
ডেবিট নোট নং – ১২৯ তালুকদার ফার্নিচার্স তারিখ : ৭ জানুয়ারি ২০১৮
ঢাকা
ডেবিট নোট
প্রাপকের নাম : মোর্শেদ ফার্নিচার
ঠিকানা : খুলনা
সূত্র : ক্রয়/চালান নং ১৪৭/৩ জানুয়ারি ২০১৮

ক্রমিক নং মালের বিবরণ ও ফেরতের কারণ পরিমাণ (টাকা)
১ নমুনা অনুযায়ী না হওয়ায় ৮০০ টাকা দরের ১টি টেবিল এবং ২৮০ টাকা দরের ২টি চেয়ার ফেরত পাঠানো হলো। অনুগ্রহপূর্বক ১টি টেবিল ও ২টি চেয়ারের মূল্য আমাদের হিসাব হতে বাদ দিবেন।

১,৩৬০
বাদ : কারবারি বাট্টা ৫% ৬৮
১,২৯২
টাকা (কথায়) : এক হাজার দুইশত বিরানব্বই টাকা মাত্র।

বি. দ্র. ভুল-ত্রæটি সংশোধনযোগ্য। ক্রয় ব্যবস্থাপক
খ. তালুকদার ফার্নিচার্স-এর
ক্রয় জাবেদা
তারিখ ক্রেডিট হিসাব খাত শর্ত চালান নম্বর সূত্র ক্রয় হিসাব ডেবিট
পাওনাদার হিসাব ক্রেডিট
২০১৮
জানুয়ারি ২ আলম ফার্নিচার ১৪২  ১,৫০০
জানুয়ারি ৩ মোর্শেদ ফার্নিচার ১৪৭  ৪,১৪২
৫,৬৪২
উত্তর : ক্রয় জাবেদার যোগফল ৫,৬৪২ টাকা।
গ. তালুকদার ফার্নিচার্স-এর
জাবেদা (সাধারণ)
তারিখ হিসাব শিরোনাম ও ব্যাখ্যা খ. পৃ. ডেবিট টাকা ক্রেডিট টাকা
২০১৮
জানুয়ারি ১ নগদান হিসাব ডেবিট ১০,০০০
ক্রয় হিসাব ডেবিট ৫০,০০০
মূলধন হিসাব ক্রেডিট ৬০,০০০
(যেহেতু নগদ ও আসবাবপত্র মূলধন হিসেবে এনে ব্যবসায় শুরু করা হলো।)
” ৪ পরিবহন হিসাব ডেবিট ৩০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ৩০০
(নগদে পরিবহন খরচ প্রদান করা হলো।)
” ১০ নগদান হিসাব ডেবিট ১,৭৫০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১,৭৫০
(জিয়ার নিকট ধারে ৫টি চেয়ার বিক্রয় করা হলো।)
” ১৭ দেনাদার (রহিম) হিসাব ডেবিট ৩,০০০
বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ৩,০০০
(রহিমের নিকট ধারে ২টি টেবিল বিক্রি করা হলো।)
” ২৫ মজুরি হিসাব ডেবিট ২,০০০
নগদান হিসাব ক্রেডিট ২,০০০
(মজুরি বাবদ নগদ অর্থ প্রদান করা হলো।)
মোট ৬৭,০৫০ ৬৭,০৫০
উত্তর : সাধারণ জাবেদার যোগফল ৬৭,০৫০ টাকা।

প্রিয় জনের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply