এইচএসসি বাংলা তাহারেই পড়ে মনে বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

তাহারেই পড়ে মনে

সুফিয়া কামাল 

কবি পরিচিতি
নাম সুফিয়া কামাল

জন্ম পরিচয় জন্ম তারিখ : ২০ জুন, ১৯১১।
জন্মস্থান : শায়েস্তাবাদ, বরিশাল।
পৈতৃক নিবাস : কুমিল­া।
পিতৃ ও মাতৃ পরিচয় পিতার নাম : সৈয়দ আবদুল বারী।
মাতার নাম : নওয়াবজাদী সৈয়দা সাবেরা খাতুন।
শিক্ষাজীবন অনানুষ্ঠানিক ও স্বশিক্ষায় শিক্ষিত।

কর্মজীবন ও
সংসার জীবন কলকাতার একটি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা, পরবর্তীতে সাহিত্য সাধনা ও নারী আন্দোলনে ব্রতী হন। ১৯২৩ সালে মামাতো ভাই সৈয়দ নেহাল হোসেনকে বিয়ে, ১৯৩২ খ্রিষ্টাব্দে স্বামীর অকাল মৃত্যু এবং ১৯৩৯ সালে কামাল উদ্দিন আহমদকে বিয়ে করে ‘সুফিয়া কামাল’ নাম গ্রহণ।

সাহিত্য সাধনা কাহিনীকাব্য : সাঁঝের মায়া, মায়া কাজল, উদাত্ত পৃথিবী, মন ও জীবন, প্রশস্তি ও প্রার্থনা, মৃত্তিকার ঘ্রাণ ইত্যাদি।
গল্প : কেয়ার কাঁটা।
ভ্রমণ কাহিনী : সোভিয়েতের দিনগুলো।
স্মৃতিকথা : একাত্তরের ডায়েরী।
শিশুতোষ গ্রন্থ : ইতল বিতল, নওল কিশোরের দরবারে।

পুরস্কার ও সম্মাননা সুফিয়া কামাল পাকিস্তান সরকার কর্তৃক ‘তখমা-ই ইমতিয়াজ’ নামক জাতীয় পুরস্কার, বাংলা একাডেমী পুরস্কার, একুশে পদক, বেগম রোকেয়া পদক, দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ স্বর্ণপদক, নাসিরউদ্দীন স্বর্ণপদক, মুক্তধারা সাহিত্য পুরস্কার, ডড়সবহ’ং ঋবফবৎধঃরড়হ ভড়ৎ ডড়ৎষফ চবধপব ঈৎবংঃ, স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার এবং সোভিয়েত ইউনিয়নের খবহরহ ঈবহঃবহধৎু ঔঁনরষব গবফধষ, ঈুবপযড়ংষড়াধশরধ গবফধষ সহ কয়েকটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার পান।
বিশেষ কৃতিত্ব সমাজসেবা ও নারীকল্যাণমূলক কাজে অনন্য অবদান এবং ‘জননী সাহসিকা’ খ্যাতি লাভ।
জীবনাবসান ২০ নভেম্বর, ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দ।

গুরুত্বপূর্ণ বহুনির্বাচনী প্রশ্নোত্তর

১. ‘উত্তরী’ শব্দের অর্থ কী?
চ চাদর খ কুয়াশা গ সমীর ঘ উত্তর দিক
২. ‘কহিল সে ¯িœগ্ধ আঁখি তুলি’Ñচরণটিতে ‘¯িœগ্ধ আঁখি’ বলতে বোঝায়Ñ
চ মায়াবী চোখ খ কোমল চোখ
গ অশ্র“সজল চোখ ঘ উৎসুক চোখ
* উদ্দীপকটি পড়ে ৩ ও ৪ সংখ্যক প্রশ্নের উত্তর দাও।
শাহজাহানের অমর সৃষ্টি তাজমহল। তাজমহলকে ঘিরে আছে তাঁর প্রাণপ্রিয় স্ত্রী মমতাজের স্মৃতি। তাই পৃথিবীর সমস্ত সৌন্দর্য একত্র করে তিনি সাজিয়েছেন প্রিয়তম স্ত্রীর সমাধি।
৩. নিচের কোন চরণটিতে উদ্দীপকের ভাবের প্রতিফলন ঘটেছে?
ক যদিও এসেছে তবু তুমি তারে করিলে বৃথাই।
ছ তাহারেই পড়ে মনে, ভুলিতে পারি না কোনো মতে।
গ তরী তার এসেছে কি? বেজেছে কি আগমনী গান?
ঘ বাতাবি নেবুর ফুল ফুটেছে কি? ফুটেছে কি আমের মুকুল?
৪. শাহজাহান ও সুফিয়া কামালের আচরণের ভিন্নতা থাকলেও বলা যায় উভয়ই-
ক আবেগাশ্রয়ী ও অহঙ্কারী খ অভিমানী ও স্নেহপরায়ণ
জ স্মৃতিকাতর ও প্রেমময় ঘ উদাসীন ও মেধাবী
মাস্টার ট্রেইনার কর্তৃক যাচাইকৃত বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর
সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর
ক কবি পরিচিতি : (বোর্ড বই থেকে)
৫. কবি সুফিয়া কামাল কত খ্রিস্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন?
ক ১৯১৫ খ্রিস্টাব্দে খ ১৯১৬ খ্রিস্টাব্দে
জ ১৯১১ খ্রিস্টাব্দে ঘ ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে
৬. সুফিয়া কামাল কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?
ক ফরিদপুর ছ বরিশাল গ চট্টগ্রাম ঘ খুলনা
৭. কবি সুফিয়া কামাল কত খ্রিস্টাব্দে মৃত্যুবরণ করেন?
ক ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দে খ ১৯৯৫ খ্রিস্টাব্দে
গ ১৯৯৬ খ্রিস্টাব্দে ঝ ১৯৯৯ খ্রিস্টাব্দে
৮. কবি সুফিয়া কামাল কোথায় মৃত্যুবরণ করেন?
ক বরিশাল খ কালকিনিতে জ ঢাকায় ঘ প্যারিসে
৯. কবি সুফিয়া কামাল কত তারিখে মৃত্যুবরণ করেন?
ক ১৯ নভেম্বর খ ৩০ নভেম্বর
গ ২১ নভেম্বর ঝ ২২ নভেম্বর
১০. কবি সুফিয়া কামালের প্রথম স্বামী কবে মৃত্যুবরণ করেন?
ক ১৯২৫ খ্রিস্টাব্দে খ ১৯৩৪ খ্রিস্টাব্দে
গ ১৯৩০ খ্রিস্টাব্দে ঝ ১৯৩২ খ্রিস্টাব্দে
১১. কবি সুফিয়া কামালের প্রথম স্বামীর নাম কী?
ক নেহাল হাসান খ কামাল হোসেন
জ সৈয়দ নেহাল হোসেন ঘ সৈয়দ নেহাল রহমান
১২. নারী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ কে?
ক বেগম রোকেয়া খ জাহানারা ইমাম
গ নীলিমা ইব্রাহিম ঝ সুফিয়া কামাল
১৩. সুফিয়া কামালের জন্মের সময় মুসলমান নারীদের কী অবস্থা ছিল?
ক বিভিন্ন উচ্চপদস্থ চাকরি করার সুযোগ ছিল
খ স্ব-নির্ভর ছিল
জ স্কুল-কলেজে পড়ার সুযোগ ছিল না
ঘ স্বামীর ওপর নির্ভরশীল ছিল
১৪. ‘সাঁঝের মায়া’ কাব্যগ্রন্থটি কার লেখা?
ক বেগম রোকেয়ার খ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
গ সেলিনা হক ঝ সুফিয়া কামালের
১৫. ‘মায়া কাজল’ কোন জাতীয় রচনা?
ক ছোট গল্প ছ কাব্য গ নাটক ঘ উপন্যাস
১৬. সুফিয়া কামালের রচিত গল্পগ্রন্থ কোনটি?
চ কেয়ার কাঁটা খ বলাকা
গ অর্কেস্ট্রা ঘ চোরাবালি
১৭. ‘উদাত্ত পৃথিবী’ কাব্যগ্রন্থটি কার রচনা?
ক সেলিনা হোসেনের খ কামিনী রায়ের
জ সুফিয়া কামালের ঘ বেগম রোকেয়ার
১৮. ‘একাত্তরের ডায়েরী’ কী জাতীয় রচনা?
ক গল্পগ্রন্থ খ কাহিনিকাব্য
গ ভ্রমণকাহিনি ঝ স্মৃতিকথা
১৯. ‘ইতল বিতল’ সুফিয়া কামালের কী জাতীয় রচনা?
ক কল্পকাহিনি খ রূপকথা জ শিশুতোষ ঘ স্মৃতিকথা
খ মূল পাঠ : (বোর্ড বই থেকে)
২০. কবির তীব্র বিমুখতা কার প্রতি?
ক স্বামীর প্রতি খ ভক্তদের প্রতি
জ বসন্তের প্রতি ঘ প্রকৃতি প্রেমিকদের প্রতি
২১. কবি মাঘের সন্ন্যাসী বলেছেন কাকে?
চ শীত ঋতুকে খ শরৎ ঋতুকে
গ হেমন্ত ঋতুকে ঘ বসন্ত ঋতুকে
২২. “বসন্তে বরিয়া তুমি লবে না কি তব বন্দনায়?” Ñএটি কোন কবিতার অংশ বিশেষ?
ক আঠারো বছর বয়স ছ তাহারেই পড়ে মনে
গ জীবন-বন্দনা ঘ কবর
২৩. বাংলাদেশের জনমানসে নন্দিত মাতৃমূর্তিতে ভাস্বর হয়ে আছেন কে?
চ সুফিয়া কামাল খ বেগম রোকেয়া
গ কামিনী রায় ঘ জাহানারা ইমাম
২৪. সুফিয়া কামালের পৈতৃক নিবাস কোথায়?
ক খুলনা খ মাদারীপুর গ বিক্রমপুর ঝ কুমিল­া
২৫. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি কবির কোন কাব্যগ্রন্থ থেকে নেয়া হয়েছে?
ক মৃত্তিকার ঘ্রাণ খ উদাত্ত পৃথিবী
গ ইতল বিতল ঝ সাঁঝের মায়া
২৬. শীত প্রকৃতিতে কী দেয়?
চ রিক্ততার রূপ খ আশার রূপ
গ অপার সম্ভাবনার রূপ ঘ হতাশার রূপ
২৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কোন ঋতুকে বসন্তের বিপরীতে স্থাপন করা হয়েছে?
ক বর্ষা খ হেমন্ত জ শীত ঘ শরৎ
২৮. পুষ্পশূন্য দিগন্তের পথে কে চলে গেছে?
ক হেমন্তের নবান্ন উৎসব খ বসন্তের কোকিল
গ কবির স্বামী ঝ মাঘের সন্ন্যাসী
২৯. কবির হৃদয় দ্বারে কার আবেদন ব্যর্থ হয়ে গেছে?
চ বসন্তের আবেদন খ কবিভক্তের আবেদন
গ রিক্ততার আবেদন ঘ শীতের আবেদন
৩০. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কোন দুয়ার খুলে গেছে?
চ দক্ষিণ খ উত্তর গ পূর্ব ঘ পশ্চিম
৩১. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি সুফিয়া কামাল কোন ফুল ফোটার কথা জানতে চেয়েছেন?
ক মালতি ফুল খ মাধবী ফুল
গ বকুল ফুল ঝ বাতাবি লেবুর ফুল
৩২. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি কোন গান বাজার কথা জানতে চেয়েছেন?
ক বিজয়ী গান খ লোকায়ত গান
জ আগমনী গান ঘ শ্র“তিমধুর গান
৩৩. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কীসের বুকে গন্ধ নেই?
চ মাধবী খ মালতি গ বকুল ঘ কদম
৩৪. কবি কাকে কিছুতেই ভুলতে পারছেন না?
ক নবান্ন উৎসবকে ছ শীতের করুণ বিদায়কে
গ বসন্তের অপার সৌন্দর্যকেঘ বর্ষার বারিধারাতে
৩৫. “দক্ষিণ দুয়ার গেছে খুলি”- কথাটি দ্বারা কী বোঝায়?
ক দখিনা বাতাস খ দখিনা দরজায় আঘাত
গ সমীরণ ঝ দখিনা বাতাসের আগমন
৩৬. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবিকে সম্বোধন করা হয়েছেÑ
ক কবি প্রবর খ প্রিয় কবি জ হে কবি ঘ ওগো
৩৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কে কবিকে সম্বোধন করেছে?
ক কবির মন ছ কবির ভক্ত
গ কবির স্বামী ঘ কবির প্রেমিক
৩৮. বসন্তের আগমন সত্তে¡ও কবি কেমন?
ক উদাসী খ আবেগী জ উন্মনা ঘ নিরাবেগ
৩৯. কাকে স্মরণ করে প্রকৃতিতে বসন্ত এসেছে?
ক কবিকে খ কবির স্বামীকে জ শীতকে ঘ ফাগুনকে
৪০. কবিভক্তের মতে কবি বসন্তের প্রতি কী প্রদর্শন করেছে?
ক উপেক্ষা খ ভালোবাসা জ আবেগ ঘ শ্রদ্ধা
৪১. বসন্ত প্রকৃতিতে আসল কী-না এ বিষয়টি যে কবি খেয়াল করেননি তা কীভাবে বোঝা যায়?
ক তার প্রশ্ন থেকে খ তার অজ্ঞতা থেকে
জ তার ক্ষোভ থেকে ঘ তার ভালোবাসা থেকে
৪২. প্রকৃতিতে বসন্ত এলেও কবি তাকে বরণ করতে পারেননি কেন?
ক শীতের রিক্ততা কবির পছন্দ এ জন্য
খ কবি বসন্তকে পছন্দ না করার জন্য
জ কবির ব্যক্তিজীবনের দুঃখময় ঘটনার জন্য
ঘ কবি প্রকৃতি প্রেমিক না বলে
৪৩. দখিনা সমির ফুলের গন্ধে কেন আকুল হয়েছে?
ক শরতের আগমনের কারণে খ শীতের আগমনের কারণে
গ নবান্ন উৎসবের কারণে ঝ বসন্তের আগমনের কারণে
৪৪. কবি উন্মনা, উদাসীন হয়েছেন কেন?
চ স্বামীর মৃত্যুর জন্য খ ছেলের মৃত্যুর জন্য
গ মেয়ের মৃত্যুর জন্য ঘ মায়ের মৃত্যুর জন্য
৪৫. কবিভক্ত কবিকে বসন্তের বন্দনার জন্য মিনতি করেছেন কেন?
ক কবি ভক্তদের মনে করে দিতে বলেছেন বলে
খ কবি বসন্তকে ঘৃণা করেন না বলে
গ ভক্তরা কবিকে আগে থেকেই মনে করিয়ে দেন বলে
ঝ কবির প্রিয় বিয়োগে বসন্তের কথা ভুলে গেছেন বলে
৪৬. গঠনরীতির দিক থেকে ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কোন ধরনের কবিতা?
ক স্বগতোক্তি খ কাহিনিমূলক
গ সাধারণ বর্ণনা ঝ সংলাপ নির্ভর
৪৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় ব্যবহৃত ‘কুহেলি উত্তরী’ শব্দটি কী অর্থ বহন করে?
ক মাঘের চাদর খ উত্তরের কুয়াশা
জ কুয়াশার চাদর ঘ মাঘের কুয়াশা
৪৮. কবি গীত রচনা না করলেও বসন্তের আগমন বার্তা ধ্বনিত হয়েছে কীভাবে?
ক শীতের রিক্ততাকে ঢেকে রেখে
খ সৌন্দর্যের বিকাশ লাভ
জ কালের অনিবার্য নিয়ম
ঘ গ্রীষ্মের উষ্ণতাকে ঢেকে রাখা
৪৯. ‘মাঘের সন্ন্যাসী’ বলতে ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কী বোঝানো হয়েছে?
চ শীতের রিক্ততাকে খ শীতের বিদায়কে
গ বসন্তের বিদায়কে ঘ শীতের আগমনকে
৫০. শীতের রিক্ততার কথাই কবির বার বার মনে হয়েছে কেন?
চ শীতেই কবি প্রিয়জনকে হারিয়েছেন বলে
খ শীতে অনেক রকমের পিঠা খাওয়া যায় বলে
গ শীতে কবি কষ্ট পান বলে
ঘ শীতে কবি অসুস্থ থাকেন বলে
৫১. এবার বসন্তে কবির নীরব থাকার কারণ কী?
ক কবির কাব্যকে ভক্তরা গ্রহণ না করায়
খ কাব্য রচনা না করতে পারা
গ ভক্তদের ভালোবাসা না পাওয়া
ঝ প্রিয় হারানোর শোক
৫২. কবিহৃদয়ে কেন বসন্ত নাড়া দেয়নি?
ক কবি ব্যক্তিজীবনে বসন্তকে ঘৃণা করেন
ছ কবি ব্যক্তিজীবনে শোকে মুহ্যমান ছিলেন
গ কবি কাব্য রচনায় বসন্তকে উপলক্ষ করতে চান না
ঘ কবি বসন্তের সৌন্দর্যে মুগ্ধ হন না
৫৩. বসন্তের আগমন সম্পর্কে কবি সন্দিহান হয়েছেন কেন?
চ কবি ব্যক্তিজীবনের শোকে কাতর বলে বসন্ত তাকে আন্দোলিত করেনি
খ প্রকৃতিতে বসন্তের আগমনের কোনো চিহ্ন নেই বলে
গ কোনো লক্ষণ ছাড়াই বসন্তের আগমন ঘটেছে বলে
ঘ শীতের রিক্ততার পরে বসন্ত আসে বলে
৫৪. কবি তার ভক্তের মিনতি রাখলেন না কেন?
ক কবি ভক্তদের পছন্দ করেন না
ছ কবি স্বামী হারানোর বেদনায় কাতর
গ কবিদের ভক্ত দরকার হয় না
ঘ কবি প্রকৃতিকে মূল্য দেন না
৫৫. সুফিয়া কামাল বসন্তের আবেদনকে ব্যর্থ করলেন কীভাবে?
ক প্রকৃতির প্রতি আস্থাশীল না হয়ে
খ ভক্তদের কথা না শুনে
জ কোনো কাব্য রচনা না করে
ঘ স্বামী হারানোর বেদনায় কাতর হয়ে
৫৬. “গিয়াছে চলিয়া ধীরে পুষ্পশূন্য দিগন্তের পথে”Ñ বলতে কবি সুফিয়া কামাল কী বোঝাতে চেয়েছেন?
ক স্বামীর মৃত্যুকে খ বসন্তের আগমনকে
জ রিক্ত হাতে শীতের বিদায়কে ঘ শীতের আগমনকে
৫৭. শীতকে মাঘের সন্ন্যাসী বলা হয়েছে কেন?
ক সন্ন্যাসীরা শীতকে ভালোবাসেন বলে
খ সন্ন্যাসীরা শীতে সর্বত্যাগী হয় বলে
গ পৌষ ও মাঘ মাস নিয়ে শীতকাল গঠিত হয় বলে
ঝ শীতের বিদায় সর্বত্যাগী সন্ন্যাসীর মতো বলে
৫৮. কবির কাব্য প্রেরণাদাতা বলতে কাকে বোঝানো হয়েছে?
চ কবির স্বামীকে খ কবির ভক্তকে
গ কবির নিজেকে ঘ কবির মাতাকে
৫৯. ‘বসন্ত-বন্দনা’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে?
ক বসন্তে কোকিলের মতো গান গাওয়া খ বসন্তে বন্দনা করা
গ বসন্ত ঋতুতে কাব্য রচনা করা ঝ বসন্ত ঋতুকে স্তূতি করা
৬০. কবি ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় নীরব কেন?
ক ব্যস্ততায় খ বিরহে গ শূন্যতায় ঝ শোকে
৬১. কবিকে বন্দনা-গীত রচনা করতে আহŸান জানিয়েছেন কেন?
ক কবি বিরহিণী বলে খ কবি আত্মাভিমানী বলে
জ এটা কবির দায়িত্ব বলে ঘ কবি ভালো পারেন বলে
৬২. কবি শীতকে মাঘের সন্ন্যাসীরূপে কল্পনা করেছেন কেন?
ক কবি শীতকে পছন্দ করেন বলে
ছ কুয়াশার চাদর গায়ে মিলিয়ে গেছে বলে
গ মাঘ মাসে শীত বিদায় নেয় বলে
ঘ মাঘের সঙ্গে শীতের ভালো সম্পর্ক বলে
৬৩. কবিভক্তরা বসন্ত ঋতুর স্তূূতি করেছেন কেন?
ক বসন্তে মন কোকিলের মতো গেয়ে ওঠে বলে
খ বসন্ত নীরব বলে
গ বসন্তে মন উন্মনা হয় বলে
ঝ বসন্ত সৌন্দর্যের আঁধার বলে
৬৪. ‘ফুল কি ফোটেনি শাখে?’Ñকবি এ জাতীয় প্রশ্ন করছেন কেন?
ক বসন্তের আগমন জানার জন্য ছ উদাসীনতার জন্য
গ বন্দনাগীত রচনার জন্য ঘ বিরহের জন্য
৬৫. কবিমন অবসন্ন হয়ে যাওয়ার কারণ?
ক বন্দনাগীত রচনা না করতে পারা
খ বিষাদ গ ব্যস্ততায় ঝ রিক্ততা
৬৬. কবি সুফিয়া কামালকে কেন সমস্ত সৌন্দর্য স্পর্শ করতে পারে না?
ক আনন্দের ফোয়ারা বয়ে যাওয়ায়
ছ বেদনার সাগরে নিমজ্জিত থাকায়
গ সৌন্দর্যে কবি আকৃষ্ট নন
ঘ কবি প্রকৃতি প্রেমিক না বলে
৬৭. ‘ঋতুর রাজন’ বলতে কবি কাকে বুঝিয়েছেন?
ক বৈশাখকে খ শরৎকে গ শীতকে ঝ বসন্তকে
৬৮. কবি সুফিয়া কামাল নীরব কেন?
ক ব্যস্ততায় খ বিষণœতায় গ অসুস্থ বলে ঝ শোকে
৬৯. কবিভক্তরা কেন কবিকে প্রশ্ন করেছেন?
ক কবি অস্থির বলে ছ কবি উন্মনা বলে
গ কবি ভাবুক বলে ঘ কবি অসুস্থ বলে
৭০. প্রকৃতিতে বসন্ত আসে কখন?
ক চৈত্র আগমনের সাথে সাথে
খ বৈশাখ আগমনের সাথে সাথে
গ পৌষ আগমনের সাথে সাথে
ঝ ফাল্গুন আগমনের সাথে সাথে
৭১. বসন্তের আগমনে কবিকে উজ্জীবিত করার প্রচেষ্টায় কবিভক্তের কোন মনোভাবের পরিচয় পাওয়া যায়?
ক প্রেম খ ভালোবাসা গ শ্রদ্ধা ঝ আন্তরিকতা
৭২. শীতের সাথে প্রকৃতির কোন রূপের সম্পর্ক রয়েছে?
ক সরসতার ছ রিক্ততার গ প্রাপ্তির ঘ শূন্যতার
৭৩. কবির নীরবতাকে নিচের কোনটির সাথে তুলনা করা যায়?
ক বসন্ত বন্দনার সাথে ছ শীতের কুয়াশার সাথে
গ শরতের শিশিরের সাথে ঘ জ্যৈষ্ঠের খররৌদ্রের সাথে
৭৪. কবির উদাসীনতাকে তুলনা করা যায় কোনটির সাথে?
ক বসন্তের সৌন্দর্য খ শীতের রিক্ততা
গ শীতের জরাজীর্ণতা ঝ প্রকৃতির বিরূপতা
৭৫. শীতকে তুলনা করা হয়েছে কীসের সাথে?
ক বসন্তের সৌন্দর্য ছ মাঘের সন্ন্যাসী
গ জরাজীর্ণতা ঘ শীতের রিক্ততা
৭৬. কবিভক্ত কবিমনে কীসের আহŸান জাগাতে চেয়েছেন?
ক শীতের বিদায়ী বার্তা খ বসন্তের বিদায়ী বার্তা
জ বসন্তের আগমনী বার্তা ঘ কাব্য রচনার
৭৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবির অনুভূতির সাথে তুলনীয় কোনটি?
ক বসন্তের সৌন্দর্য খ প্রকৃতির বিরূপতা
জ শীতের রিক্ততা ঘ বসন্তের চিত্র
৭৮. তাহারেই পড়ে মনে কবিতায় কোন বিষয়টি বেশি প্রকাশিত?
ক বসন্ত প্রকৃতির রূপ সৌন্দর্য খ কবির শূন্যতাবোধ
জ কবির স্বামীর স্মৃতিচারণ ঘ কবির রিক্ত মন
৭৯. বসন্ত যে প্রকৃতিতে এসেছে কবিভক্তের কোন কথায় এ বিষয়টি আমরা নিশ্চিত হই?
ক এখনো দেখনি তুমি? খ এসেছে তা ফাগুন স্মরিয়া
জ ফুল কী ফুটেনি শাখে? ঘ পুষ্পারতি লভেনি ঋতুর রাজন?
৮০. কবিভক্তের মতে বসন্ত ব্যর্থ কেন?
ক কবি তাকে বরণ করেননি বলে
খ ফুল ফোটেনি বলে
জ বসন্ত শীতের দুর্ভোগ লাঘব করতে পারে নি বলে
ঘ উপরের সবগুলো
৮১. নিচের কোন কবিতায় প্রকৃতি ও মানবমনের সম্পর্কের একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোগের বিষয়টি প্রকাশিত হয়েছে?
ক আমার পূর্ব বাংলা ছ তাহারেই পড়ে মনে
গ পাঞ্জেরী ঘ কবর
৮২. “কুহেলি উত্তরী তলে মাঘের সন্ন্যাসী”Ñএখানে কবির অনুভূতিÑ
ক প্রকৃতির প্রতি বিরূপতার জন্ম দিয়েছে
খ কবির সন্ন্যাসীর মতো চলে যাওয়া
গ বসন্ত সৌন্দর্য নিয়ে আবির্ভূত হয়েছে
ঝ শীতের রিক্ততায় উদ্ভাসিত হয়েছে
৮৩. কবি হৃদয়ের বেদনার চিত্র কোন বিষয়টির ভেতর দিয়ে ফুটিয়ে তুলেছেন?
ক মানবজীবনের গতি-প্রকৃতি
খ প্রকৃতির সৌন্দর্যের চিত্র
জ শীতের সর্বত্যাগী সন্ন্যাসীর রূপ
ঘ বসন্তের বিদায়ী বার্তা
৮৪. সুফিয়া কামাল খ্যাতি অর্জন করেছিলেন কীসে?
ক তাহারেই পড়ে মনে কবিতা লিখে
ছ সাহিত্য সাধনা ও নারী আন্দোলনে ব্রতী হয়ে
গ নারী আন্দোলনে ব্রতী হয়ে
ঘ সমাজ সংস্কার করে
৮৫. “বাতাবি নেবুর ফুল ফুটেছে কি?” এখানে কী প্রকাশিত হয়েছে?
ক কবির জিজ্ঞাসা খ কবির আকুলতা
জ কবির উদাসীনতা ঘ কবির ব্যাকুলতা
৮৬. “এমন উন্মনা তুমি?”Ñ এটি কার উক্তি?
চ ভক্তদের খ কবির
গ কবির স্বামীর ঘ কবির মায়ের
গ শব্দার্থ ও টীকা : (বোর্ড বই থেকে)
৮৭. ‘বরিয়া’ শব্দের অর্থ কী?
ক বহিয়া করা খ স্মৃতি মনে করা
জ বরণ করা ঘ হাজির করা
৮৮. ‘রচিয়া’ শব্দের অর্থ কী?
ক সহে না অর্থে খ রচে অর্থে
গ রহে না ঝ রচনা করে
৮৯. ‘উত্তরী’ শব্দের অর্থ কী?
ক উত্তর দিক খ উত্তরদাতা জ চাদর ঘ উত্তরসূরি
৯০. ‘কুহেলি’ শব্দের অর্থ কী?
ক কোকিলের ডাক ছ কুয়াশা
গ নিরাশা ঘ দৃষ্টিভ্রম
৯১. ‘অলখ’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে?
ক অলংকার খ দৃষ্টির কাছাকাছি
জ দৃষ্টির অগোচরে ঘ দৃষ্টির সীমানায়
৯২. ‘মাধবী’ শব্দটি ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি কী অর্থে ব্যবহার করেছেন?
ক সবুজ পাতা খ ফুল গ গুল্মলতা ঝ বাসন্তীলতা
৯৩. ‘পাথার’ শব্দটি ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কোন অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?
ক নদী অর্থে খ পাথর অর্থে গ পর্বত অর্থে ঝ সমুদ্র অর্থে
৯৪. ‘পুরস্কার’ শব্দটি ব্যাকরণের কোন নিয়েমে নিষ্পন্ন হয়েছে?
ক সমাসযোগে খ প্রকৃতিযোগে
জ সন্ধিযোগে ঘ উপসর্গযোগে
৯৫. ‘উন্মনা’ শব্দটি ব্যাকরণের কোন নিয়মে গঠিত হয়েছে?
ক সমাসযোগে খ প্রত্যয়যোগে
জ সন্ধিযোগে ঘ উপসর্গযোগে
৯৬. ‘উন্মনা’ শব্দটির সঠিক সন্ধিবিচ্ছেদ কোনটি?
ক উন+মন খ উঃ+মনা গ উনা+মন ঝ উৎ+মনা
৯৭. কোনটি ‘ফাগুন’ শব্দটির ব্যুৎপত্তি নির্দেশক শব্দ?
ক ফাগুন খ ফাগুয়ান জ ফাল্গুন ঘ ফল্গু
৯৮. ‘দখিনা’ শব্দটিতে কোন প্রত্যয় ব্যবহৃত হয়েছে?
ক দক্ষিণ + অনা খ দক্ষিণ + অ
জ দক্ষিণ + আ ঘ দক্ষি + ইনা
৯৯. কোনটি ‘কুঁড়ি’ শব্দটির ব্যুৎপত্তি নির্দেশক শব্দ?
ক কড়ি খ বিশ গ কুরি ঝ কোরক
১০০. ‘দিগন্ত’ শব্দটির সঠিক সন্ধিবিচ্ছেদ হিসেবে কোনটি সঠিক?
চ দিক + অন্ত খ দিগা + অন্ত
গ দিগ + অন্ত ঘ দিক + আন্ত
১০১. ‘পুষ্পারতি’ শব্দটির সঠিক সন্ধিবিচ্ছেদ কোনটি?
ক পুষ্প + রতি খ পুষ্পা + রতি
গ পুষ্পা + আরতি ঝ পুষ্প + আরতি
১০২. ‘বাতাবি’ শব্দটি কোন শব্দ থেকে আনীত হয়েছে?
ক বাটাতিয়া খ বাতাবিয়া গ বাটাবি ঝ বাটাভিয়া
১০৩. নিচের সঠিক বানানটি চিহ্নিত কর?
ক বাতাবী খ গীতা গ গাতী ঝ সন্ন্যাসী
১০৪. ‘দুয়ার’ শব্দটির ব্যুৎপত্তি নির্দেশক শব্দ কোনটি?
ক দার ছ দ্বার গ দাড় ঘ দ্বাড়
১০৫. ‘সুযোগ’ শব্দটি ব্যাকরণের কোন নিয়মে গঠিত হয়েছে?
ক সমাসযোগে খ ষ-ত্ব বিধানযোগে
গ সন্ধিযোগে ঝ উপসর্গযোগে
১০৬. ‘নন্দিত’ শব্দটির বিপরীতার্থক শব্দ হিসেবে তুমি কোনটিকে গ্রহণযোগ্য বলে মনে কর?
ক আন্দিত ছ নিন্দিত গ অনির্ধারণ ঘ আনন্দিত
১০৭. ‘বিমুখতা’ শব্দটি ব্যাকরণের কোন নিয়মে সম্পন্ন হয়েছে?
ক উপসর্গযোগে খ সন্ধিযোগে
জ প্রত্যয়যোগে ঘ বি উপসর্গযোগে
১০৮. ‘নীরব’ শব্দের সঠিক সন্ধি বিচ্ছেদ কোনটি যথার্থ?
ক নীঃ + রব খ নি + রব জ নিঃ + রব ঘ নী + রব
১০৯. নিচের কোন বানানটি শুদ্ধ?
ক গীতী খ সমির গ আগমনি ঝ সমীর
১১০. ‘অলখ’ শব্দের মূল ব্যুৎপত্তি হবেÑ
ক অলক্ষ্য ছ অলক্ষিত গ অলক্ষ ঘ অলক
১১১. ‘আজ’ শব্দের মূল/ব্যুৎপত্তি কী?
চ অদ্য খ আইজ গ আজি ঘ আদ্য
১১২. ‘হেথায়’ শব্দের শিষ্টচলিত রূপ কী হবে?
ক সেথায় খ হচ্ছে জ সেইখানে ঘ ঐখানে
১১৩. ‘রিক্ত হস্তে’ শব্দটি কোনটির সাথে মানানসই?
ক সব ছিন্ন করে ছ খালি হাতে
গ সব শূন্য করে ঘ সব উজাড় করে
১১৪. নিচের কোন বাক্যে নি-বাচক ক্রিয়া বিশেষণ রয়েছে?
ক ভুলিতে পারি না কোন মতে ছ ফুল কি ফোটেনি শাখে
গ করে নাই অর্ঘ্য বিরচন ঘ রচিয়া লহ না আজও গীতি
১১৫. ‘পুষ্পারতি’ শব্দের ব্যুৎপত্তিতে কোনটি হবে?
ক পুষ্প + অরতি খ পুষ্পর + তি
গ পুষ্পা + আরতি ঝ পুষ্প + আরতি
ঘ পাঠ পরিচিতি : (বোর্ড বই থেকে)
১১৬. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি কত খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত হয়?
ক ১৯৪০ খ্রিস্টাব্দে খ ১৯৪৫ খ্রিস্টাব্দে
গ ১৯৩৬ খ্রিস্টাব্দে ঝ ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দে
১১৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি কোন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়?
ক মাসিক এমদাদিয়া খ বেগম
জ মাসিক মোহাম্মদী ঘ সবুজপত্র
১১৮. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি কোন কবির লেখা?
ক শামসুর রাহমান খ কামিনী রায়
জ সুফিয়া কামাল ঘ আহসান হাবীব
১১৯. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটির স্তবক সংখ্যা কত?
চ পাঁচ খ ছয় গ সাত ঘ আট
১২০. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি কোন ছন্দে রচিত?
ক অমিত্রাক্ষরছন্দে খ স্বরবৃত্ত
জ অক্ষরবৃত্ত ঘ মাত্রাবৃত্ত
১২১. কবিভক্ত কবির কণ্ঠে কী শুনতে চেয়েছেন?
ক গ্রীষ্ম বন্দনা খ শরৎ বন্দনা
গ হেমন্ত বন্দনা ঝ বসন্ত বন্দনা
১২২. ফাগুনকে স্মরণ করে কার আগমন বার্তা ধ্বনিত হয়েছে?
ক হেমন্তের ছ বসন্তের গ শীতের ঘ শরতের
১২৩. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি গঠনরীতির দিক দিয়ে কী ধরনের?
ক স্মৃতিচারণমূলক রচনা খ গীতিধর্মীমূলক রচনা
গ আত্মপ্রশস্তিমূলক রচনা ঝ সংলাপনির্ভর রচনা
১২৪. সুফিয়া কামালের উলে­খযোগ্য কাব্যগ্রন্থের নাম কী?
চ উদাত্ত পৃথিবী খ জাগো গো ভগিনী
গ ইতল বিতল ঘ কেয়ার কাঁটা
১২৫. “তাহারেই পড়ে মনে, ভুলিতে পারি না কোনো মতে।”Ñকবি তাকে ভুলতে পারেননি কেন?
ক তিনি ছিলেন কবির একমাত্র অবলম্বন
ছ তিনি ছিলেন কবির প্রিয়তম স্বামী, কাব্য প্রেরণাদাতা
গ তিনি ছিলেন কবির কাছের মানুষ
ঘ তিনি ছিলেন কবির শুভাকাক্সক্ষী
১২৬. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি ‘ঋতুর রাজন’ বলতে কী বুঝিয়েছেন?
ক প্রকৃতির বিরূপতাকে খ সর্বরিক্ত সন্ন্যাসী শীতকে
জ ঋতুরাজ বসন্তকে ঘ প্রকৃতির সৌন্দর্যকে
১২৭. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটির নামকরণ এটি ছাড়া নিচের কোনটিকে সমর্থন করে?
ক বসন্তে আগমন খ সন্ন্যাসী শীত
গ অমলিন ঝ স্মৃতি
১২৮. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতার ভাববস্তুতে কীসের সুর মলিন হয়ে আছে?
ক বিষণœতার সুর খ বসন্তের উচ্ছল প্রকৃতির
জ প্রিয়জনের প্রতি ভালোবাসার ঘ প্রকৃতি প্রেমের
১২৯. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাকে কী আচ্ছন্ন করে আছে?
ক শীতের রিক্ততা
খ কবির ব্যক্তিজীবনের কথা
জ বিষাদময় রিক্ততার সুর
ঘ প্রকৃতি ও মানবমন
১৩০. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি তাৎপর্যময় অভিব্যক্তি প্রকাশ করেছেনÑ
চ প্রকৃতি ও মানবমনের সম্পর্কের
খ কবি ও কবির স্বজনদের সম্পর্কে
গ কবি ও ভক্তের সম্পর্কে
ঘ বসন্ত ও কবির সম্পর্কে
১৩১. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় প্রাধান্য দেয়া হয়েছে?
ক বসন্তকে খ শীতের রিক্ততা
গ বিষাদময়তাকে ঝ ব্যক্তিজীবনকে
১৩২. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতার নামকরণ কোন কারণে যুক্তিযুক্ত?
চ কাব্য প্রেরণাদাতার অনুপস্থিতিকে বড় করে দেখা
খ প্রিয়জন হারানোর বেদনা ঘনীভূত হওয়া
গ প্রকৃতির প্রতি উদাসীন হয়ে পড়া
ঘ শীতের রিক্ততাকে মনে পড়া
১৩৩. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কোন বিষয়টি উঠে এসেছে?
ক প্রকৃতির প্রতি মানবমনের ভালোবাসা
খ কবিমনের ভাবান্তর
গ প্রকৃতির প্রতি মানবমনের বিরূপতা
ঝ মানবমন ও প্রকৃতির যোগসাদৃশ্য
১৩৪. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতার মূল বিষয়টি কবি ফুটিয়ে তুলেছেন কোনটির মাধ্যমে?
ক কবির ভক্তদের প্রতি অবহেলার মাধ্যমে
ছ কবির বেদনায় প্রকৃতির মেলবন্ধনের মাধ্যমে
গ কবির প্রকৃতির প্রতি উদাসীনতার মাধ্যমে
ঘ কবির স্বামীর অকাল মৃত্যুর মাধ্যমে
১৩৫. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতার মূল উপজীব্য বিষয় কোনটি?
ক প্রকৃতির ও সৌন্দর্যের চিত্র খ বসন্তের বন্দনা
গ ব্যক্তিজীবনের সুখ-দুঃখ ঝ মানবমন ও প্রকৃতির মেলবন্ধন
১৩৬. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতাটি সার্থক কীসে?
চ মানবজীবন ও প্রকৃতির তাৎপর্যময় অভিব্যক্তিতে
খ প্রিয়জন হারানোর শোকে
গ কাব্য প্রেরণাদাতার বিয়োগব্যথায়
ঘ শীতকে বিদায় দেওয়ায়
১৩৭. “তাহারেই পড়ে মনে।”Ñএখানে ‘তাহারেই’ সর্বনাম কাকে নির্দেশ করছে?
ক কবির কন্যাকে ছ কবির প্রথম স্বামীকে
গ কবির পুত্রকে ঘ কবির পিতাকে
১৩৮. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কবি কীসের জন্য আকুলতা প্রকাশ করেছেন?
ক বাতাবি নেবুর জন্য খ চৈত্রের জন্য
জ শীতের জন্য ঘ বসন্তের জন্য
১৩৯. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় বসন্তের যে রূপচিত্র অংকিত হয়েছে তার দ্বারা কী বোঝানো হয়েছে?
ক কবির ভ্রাতৃবিয়োগ বেদনা খ কবির উচ্ছ¡াসময়তা
গ কবির মাতৃবিয়োগ বেদনা ঝ কবির উদাসীনতা
১৪০. সুফিয়া কামালের জন্মসাল কত?
ক ১৯০৯ খ ১৯১৯ জ ১৯১১ ঘ ১৮১১
১৪১. সুফিয়া কামালের পৈতৃক নিবাস কোথায়?
ক বি-বাড়িয়া খ পাড়াতলী গ কাঁঠালপাড়া ঝ কুমিল­া
১৪২. সুফিয়া কামালের প্রথম স্বামীর নাম কী?
চ সৈয়দ নেহাল হোসেন খ সৈয়দ নেয়ামত হোসেন
গ সৈয়দ কামাল হোসেন ঘ সৈয়দ নেহাল রহমান
১৪৩. ‘কহিল সে øিগ্ধ আঁখি তুলি-দক্ষিণ দুয়ার গেছে খুলি?’Ñকবির এ উক্তির কারণ কী?
ক অলসতা খ নিস্পৃহতা জ উদাসীনতা ঘ অনাসক্ততা
১৪৪. ‘গিয়াছে চলিয়া ধীরে পুষ্পশূন্য দিগন্তের পথে’Ñকে চলে গিয়েছে?
ক কবির ভক্ত খ বসন্ত ঋতু
গ আমের মুকুল ঘ শীতঋতু
১৪৫. ‘মাঘের সন্ন্যাসী’ বলতে কাকে বোঝানো হয়েছে?
চ শীতকালকে খ বসন্তকালকে
গ কবি হৃদয়কে ঘ কবিভক্ত হৃদয়কে
১৪৬. ‘তাহারেই পড়ে মনে’ কবিতায় কোন ঋতুর উলে­খ আছে?
চ বসন্ত ও শীত খ গ্রীষ্ম ও বসন্ত
গ গ্রীষ্ম ও শীত ঘ শীত ও বর্ষা

প্রিয় জনের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply