এইচএসসি ব্যবসায় উদ্যোগ দ্বাদশ অধ্যায় ব্যবসায় নৈতিকতা ও সামাজিক দায়বব্ধতা সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

অধ্যায়-১২

ব্যবসায় নৈতিকতা ও সামাজিক দায়বব্ধতা

গুরুত্বপূর্ণ সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন১ জনাব রবি একজন পেঁয়াজ আমদানিকারক। গত রমজানের একমাস আগে তিনি ৬০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করলেও সে সময়ে বাজারে তা সরবরাহ করেননি। রমজানে বাজারে পেঁয়াজের মূল্য বেড়ে যায় বলে রবি প্রচুর মুনাফা অর্জন করেন। [রা. বো., দি. বো. ১৭]
অ ক. ব্যবসায়ে নৈতিকতা কী? ১
অ খ. কর্পোরেট সামাজিক দায়িত্ব কী? ব্যাখ্যা করো। ২
অ গ. উদ্দীপকে রবি সমাজের কোন পক্ষের প্রতি দায়িত্ব পালনে অবজ্ঞা করছেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. নৈতিকতার মানদণ্ডে রবির কর্মকাণ্ড মূল্যায়ন করো। ৪
১ নং প্রশ্নের উত্তর অ
ক ব্যবসায় পরিচালনায় ন্যায়-অন্যায়, উচিত-অনুচিত, ভালো-মন্দ বিচারের মাপকাঠিকে ব্যবসায় নৈতিকতা বলে।
খ কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলো যেসব সুযোগ-সুবিধা প্রদানমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করে তাকে কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি (ঈঝজচ) বলে।
ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ তাদের সক্ষমতা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি গ্রহণ করে। বাংলাদেশে বড় বড় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ ঈঝজচ-এর পৃথক খাত ও বরাদ্দের ব্যবস্থা করে এবং সে অনুযায়ী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকে।
গ উদ্দীপকে রবি সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালনে অবহেলা করছেন।
ক্রেতা বা ভোক্তা বলতে গেলে ব্যবসায়ের প্রাণস্বরূপ। তাদের আস্থা ও সহযোগিতার ওপর ব্যবসায়ের সফলতা বিশেষভাবে নির্ভরশীল। প্রত্যেক ব্যবসায়ীর জন্য ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি দায়িত্ব পালন জরুরি।
উদ্দীপকের জনাব রবি একজন পেঁয়াজ আমদানিকারক। গত রমজানের একমাস আগে তিনি ৬০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করেন। কিন্তু তিনি সেসময়ে বাজারে তা সরবরাহ করেননি। রমজানে বাজারে পেঁয়াজের মূল্য বেড়ে যায়, ফলে জনাব রবি প্রচুর মুনাফা অর্জন করেন। সমাজে বসবাসকারী ক্রেতা বা ভোক্তারা সবসময় ন্যায্যমূল্যে পর্যাপ্ত পণ্য পাওয়ার প্রত্যাশা করেন। কিন্তু ব্যবসায়ী হিসেবে জনাব রবি পর্যাপ্ত পণ্য সরবরাহ করেননি। পণ্যের বাজার অস্থিতিশীল করে বেশি দামে তিনি পণ্য বিক্রি করেন। যার ফলে ক্রেতা ও ভোক্তারা দুর্ভোগের শিকার হন। এভাবে তিনি ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালনে অবহেলা করছেন।
ঘ ব্যবসায় নৈতিকতার মানদণ্ডে রবির কর্মকাণ্ড অনৈতিক।
ব্যবসায় নৈতিকতা হচ্ছে ব্যবসায়ে ভালো-মন্দ, সত্য-মিথ্যা, সঠিক-ভুল বিচারে প্রত্যাশিত আচরণ প্রদর্শন করা। ব্যবসায় পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রতিটি ব্যবসায়ীকে নৈতিকভাবে ব্যবসায় পরিচালনা করা উচিত। ওজনে কম দেওয়া, অত্যধিক মুনাফা লাভ, নিæমানের পণ্য দেওয়া প্রভৃতি ব্যবসায়ের অনৈতিক কার্যাবলি।
উদ্দীপকের জনাব রবি পেঁয়াজ আমদানি করেন। তিনি গত রমজানের একমাস আগে ৬০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করেন, যা ভোক্তাদের জন্য পর্যাপ্ত ছিল। কিন্তু যথাসময়ে তিনি তা বাজারজাত করেননি। রমজানে পেঁয়াজের বাজারমূল্য বাড়ার পর তা বিক্রি করে তিনি প্রচুর মুনাফা অর্জন করেন। এভাবে ব্যবসায় ভালো চললেও পরবর্তী সময়ে তার বিক্রয়ের পরিমাণ কমে যাবে।
জনাব রবি যেভাবে অধিক লাভের আশায় সঠিক সময়ে ও ন্যায্যমূল্যে পণ্য সরবরাহ করেননি তা ব্যবসায়ের নৈতিকতাবর্জিত। তার এরূপ কর্মকাণ্ডের ফলে ক্রেতা ও ভোক্তারা ভোগান্তির শিকার হন। যার ফলে ক্রেতা সমাজে তার সুনাম নষ্ট হবে। ভবিষ্যতে তিনি অন্য সৎ ব্যবসায়ীদের সাথে টিকে থাকতে পারবেন না। এছাড়া ক্রেতারাও অসন্তুষ্ট হন। সুতরাং, নৈতিকতার মানদণ্ডে রবির ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড সম্পূর্ণ অনৈতিক।

মমমপ্রশ্ন২ জনাব আব্দুর রাজ্জাক কিছু ফল কেনার জন্য বাজারে গেলেন। তিনি লক্ষ করলেন কোনো ফলের উপর মাছি নেই আবার পচনের কোনো দাগও ফলে দেখা যাচ্ছে না। তিনি ভাবলেন, অতীতে ফলের উপর মৌমাছি বা মাছি উড়তে দেখলেও এখন তা নেই কেন? বিষয়টি ভেবে তিনি কোনো ফল না কিনেই বাড়ি ফিরলেন। বিষয়টি তাকে বেশ শঙ্কিত করে তুললো। [রা. বো., কু. বো. ১৭]
অ ক. ওঝঙ-এর পূর্ণরূপ লেখো। ১
অ খ. সামাজিক ব্যবসায় বলতে কী বোঝায়? ২
অ গ. ফলের উপর মাছি না বসায় ব্যবসায়ীদের কোন বিষয়টি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. জনাব রাজ্জাকের শঙ্কা হ্রাসে সমাজের প্রতি ব্যবসায়ীদের দায়বদ্ধতা আছে কি? বিশ্লেষণ করো। ৪
২ নং প্রশ্নের উত্তর অ
ক ওঝঙ-এর পূর্ণরূপ হলো ওহঃবৎহধঃরড়হধষ ঙৎমধহরুধঃরড়হ ভড়ৎ ঝঃধহফধৎফরুধঃরড়হ।
খ যে ব্যবসায় মুনাফা অর্জনের জন্য গঠিত না হয়ে সমাজের দারিদ্র্য দূরীকরণ ও কল্যাণের উদ্দেশ্যে গঠিত হয় তাই সামাজিক ব্যবসায়।
এ ব্যবসায়ে বিনিয়োগকারী শুধু তাদের বিনিয়োগকৃত অর্থ ফেরত পান, কোনো মুনাফা পান না। মুনাফার অর্থ দিয়ে যাবতীয় খরচ নির্বাহ করা হয়, যা ব্যবসায় সম্প্রসারণে পুনঃবিনিয়োগ হিসেবে ধরা হয়। সুতরাং মানসিক সন্তুষ্টি অর্জনের উদ্দেশ্যে মালিক এ ধরনের ব্যবসায়ে অর্থ বিনিয়োগ করেন।
গ উদ্দীপকে ফলের উপর মৌমাছি না বসায় ব্যবসায়ীদের নৈতিকতার বিষয়টি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।
ব্যবসায় পরিচালনাগত বিষয়ে ন্যায়-অন্যায়, উচিত-অনুচিত ইত্যাদি বিষয়ের বিচারের মাপকাঠি হলো ব্যবসায় নৈতিকতা। ব্যবসায়ের সঠিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতার পরিচয় হলো পণ্যে ভেজাল না দেওয়া, ক্ষতিকর কোনো উপকরণ ব্যবহার না করা।
উদ্দীপকে জনাব আব্দুর রাজ্জাক ফল কিনতে গিয়ে দেখলেন যে, ফলে মৌমাছি বসছে না আবার পচনের কোনো দাগও নেই। অর্থাৎ এখানে ফলকে সতেজ দেখাতে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ফরমালিন ব্যবহার করা হয়েছে। এটি ফলমূল দীর্ঘদিন সংরক্ষণের জন্য ব্যবহৃত হয়, যা গ্রহণ করলে মানবদেহ স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্মুখীন হয়। ব্যবসায় নৈতিকতার দিক দিয়ে এটি অপরাধমূলক কাজ। উক্ত রাসায়নিক ব্যবহারের ফলেই ফলমূলে কোনো মৌমাছি বসছে না। এভাবে ব্যবসায়ীরা ক্রেতাদেরকে ঠকাচ্ছেন এবং তাদের ক্ষতি করছেন। এজন্য এক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের নৈতিকতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।
ঘ উদ্দীপকের জনাব রাজ্জাকের শঙ্কা হ্রাসে সমাজের প্রতি ব্যবসায়ীদের দায়বদ্ধতা পালন একান্ত আবশ্যক।
ব্যবসায়ের সামাজিক দায়িত্ব বলতে ব্যবসায়ের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত বিভিন্ন পক্ষের প্রতি জণকল্যাণমূলক দায়িত্ব পালন করাকে বোঝায়।
উদ্দীপকে জনাব রাজ্জাক ফল কিনতে গিয়ে দেখেন বিক্রেতারা ফলে ফরমালিন দিয়েছেন। তাই ফলে মাছি বসছে না। এ ক্ষতিকর পদার্থ মানব শরীরের মারÍক ক্ষতি করে। তাই বিষয়টি তাকে বেশ শঙ্কিত করে তোলে।
সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি ব্যবসায়ীদের দায়িত্বের অন্তর্ভুক্ত হলো পণ্যে ভেজাল না দেওয়া, সঠিক মানের ও ওজনের পণ্য সরবরাহ করা, ক্ষতিকর পণ্য সরবরাহ না করা। এসব দায়িত্ব পালন না করলে কোনো ব্যবসায়ীর পক্ষে চ‚ড়ান্তভাবে সফলতা অর্জন করা অসম্ভব। কিন্তু উদ্দীপকের বিক্রেতারা এসব নৈতিকতা না মেনে ক্রেতাদের ঠকিয়ে পণ্যে ভেজাল দ্রব্য মেশাচ্ছেন। এ রকম বিক্রেতা ব্যবসায়ীরা সমাজে বেশিদিন ব্যবসায় টিকিয়ে রাখতে পারবেন না। ব্যবসায়ী হিসেবে স্থায়ীভাবে টিকে থাকতে হলে সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি দায়বদ্ধতা পালন করা আবশ্যক।

মমমপ্রশ্ন৩ কাপড় ব্যবসায়ী জনাব আকতার পার্বত্য এলাকায় বৈসাবির সময় কম মূল্যে কাপড় বিক্রি করেন। তিনি সমাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে যতটুকু সম্ভব অংশগ্রহণ করেন। অন্যদিকে বিখ্যাত ব্যবসায়ী জনাব মোক্তার গত অর্থবছরে আয়কর রিটার্নে সম্পত্তির মূল্য কম দেখিয়ে কর প্রদান করেন। [য. বো. ১৭]
অ ক. ঈঝজচ কী? ১
অ খ. পরিবেশ কীভাবে দূষিত হয়? ২
অ গ. উদ্দীপকে জনাব মোক্তার সমাজের কোন পক্ষের প্রতি দায়িত্ব লঙ্ঘন করেছেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. মূল্যবোধের আলোকে জনাব আকতারের কার্যক্রম বিশ্লেষণ করো। ৪
৩ নং প্রশ্নের উত্তর অ
ক ঈঝজচ-এর পূর্ণরূপ হলো ঈড়ৎঢ়ড়ৎধঃব ঝড়পরধষ জবংঢ়ড়হংরনরষরঃু চৎড়মৎধস।
খ কোনো কারণে পরিবেশের ভারসাম্য বিঘিœত হওয়াকে সাধারণ অর্থে পরিবেশ দূষণ বলে।
মাটি, পানি ও বায়ুর অনাকাক্সিক্ষত পরিবর্তনের মাধ্যমে পরিবেশ দূষিত হয়। মাটি, পানি ও বায়ুতে যখন বিষাক্ত পদার্থ মিশে তখন পরিবেশ দƒষিত হয়। যেমন: কল-কারখানার বর্জ্য সরাসরি মাটিতে ফেললে মাটি দূষণ হয়। এ বর্জ্য একসময় পানির সাথে মিশে পানি দূষণ হয় এবং এরূপ বর্জ্যরে পচনের ফলে পরবর্তী সময়ে বায়ু দূষণ হয়। এভাবেই সামগ্রিক পরিবেশ দূষিত হয়।
গ উদ্দীপকে জনাব মোক্তার সরকারের প্রতি করণীয় দায়িত্ব লঙ্ঘন করেছেন।
সরকার যেকোনো সমাজে গুরুত্বপূর্ণ। দেশের ব্যবসায় পরিবেশ উন্নয়নে সরকারের যেমন দায়িত্ব রয়েছে, তেমনি ব্যবসায়েরও সরকারের প্রতি দায়িত্ব পালন করা উচিত।
উদ্দীপকে উলে­খ্য, বিখ্যাত ব্যবসায়ী জনাব মোক্তার গত অর্থ বৎসরে আয়কর রিটার্নে সম্পত্তির মূল্য কম দেখিয়ে কর দেন। যথারীতি কর ও রাজস্ব দেওয়া ব্যবসায়ীর সামাজিক দায়বদ্ধতা। সরকার এ অর্থ পরবর্তী সময়ে সমাজের কল্যাণেই ব্যয় করে। প্রত্যেকটি ব্যবসায়ীরই দায়িত্ব সরকারের প্রতি তাদের সব করণীয় যথার্থভবে পালন করা। কিন্তু জনাব মোক্তার তা না করে সরকারকে কর ফাঁকি দিয়েছেন। সুতরাং তিনি এভাবে সরকারের প্রতি দায়িত্ব পালনে অবহেলা করেছেন।
ঘ মূল্যবোধের আলোকে জনাব আকতারের কার্যক্রম যথার্থই যৌক্তিক এবং নৈতিক।
ব্যবসায় পরিচালনায় ভালো-মন্দ, উচিত-অনুচিত, বোধ বা উপলব্ধিই হলো ব্যবসায়িক মূল্যবোধ। ব্যবসায়ে মূল্যবোধ ও নৈতিকতার সঠিক প্রতিফলন ঘটলে ব্যবসায়ীর সুনাম প্রতিষ্ঠিত হয়।
উদ্দীপকের কাপড় ব্যবসায়ী জনাব আকতার পার্বত্য এলাকায় বৈসাবির সময় কম মূল্যে কাপড় বিক্রি করেন। এতে ঐ এলাকার ধনী-গরিব নির্বিশেষে সবাই উৎসবের জন্য তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী কাপড় কিনতে পারেন। এতে উৎসব আনন্দ সবাই উপভোগ করতে পারেন। ন্যায্যমূল্যে পণ্য পেয়ে ক্রেতা সন্তুষ্ট হন। এখানে জনাব আকতার সমাজের ক্রেতা-ভোক্তাদের প্রতি তার দায়িত্ব নৈতিকভাবে পালন করেছেন।
আবার সমাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে যতটুকু সম্ভব তিনি অংশগ্রহণ করেন। এতে সমাজের মানুষের কাছে তার পরিচিতি বাড়ে। ব্যবসায়ী হিসেবে তার সুনাম ঐ এলাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়। সাধারণ সম্প্রদায়ের প্রতিও নৈতিকভাবে তিনি দায়িত্ব পালন করেন। যা ব্যবসায়িক মূল্যবোধের সঠিক প্রতিফলন প্রকাশ করে। সমাজের সব ক্ষেত্রেই তিনি ব্যবসায়িক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা মেনে তার ব্যবসায় পরিচালনা করেন। সুতরাং মূল্যবোধের আলোকে তার কার্যক্রম যৌক্তিক ও নৈতিক।

মমমপ্রশ্ন৪ জনাব আকিব একজন খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনকারী। গ্রাহকের নিকট আবেদনময়ী করে তোলার জন্য তিনি কখনো তার পণ্যে রঙ মেশান না। কেউ তার দ্বারা প্রতারিত হলে তিনি ব্যথিত হন।
[ব. বো. ১৭]
অ ক. নৈতিকতা কী? ১
অ খ. বায়ু কীভাবে দূষিত হয়? ২
অ গ. জনাব আকিব যেভাবে ব্যবসায় পরিচালনা করছে তাতে তার মধ্যে কী লক্ষ করা যাচ্ছে? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. তুমি কি মনে করো জনাব আকিব ব্যবসায়ের সামাজিক দায়িত্ব পালন করছেন? তোমার মতামত দাও। ৪
৪ নং প্রশ্নের উত্তর অ
ক কোনো বিষয়ে ভালো-মন্দ, উচিত-অনুচিত, ঠিক-বেঠিক, ন্যায়-অন্যায় বিচারের মাপকাঠিকে নৈতিকতা বলে।
খ বায়ু দূষণ হলো বায়ুতে বিভিন্ন ক্ষতিকর রাসায়নিক গ্যাস ও পদার্থের সংমিশ্রণ হওয়া।
বায়ুতে ধোঁয়া, ক্ষতিকারক গ্যাস, ধুলাবালি ও সিসাসহ বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকর উপাদানযুক্ত হলে বায়ু দূষিত হয়। যেমন: কলকারখানার বিষাক্ত বর্জ্য, ইট ভাটায় কয়লা ও জ্বালানি ব্যবহারের ফলে নির্গত ধোঁয়া, যানবহানের কালো ধোঁয়া যখন বায়ুতে মেশে তখন বায়ু দূষিত হয়। এটি মানুষ ও জীবজগতের ওপর দীর্ঘমেয়াদে নানাবিধ ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করে।
গ উদ্দীপকে জনাব আকিব যেভাবে ব্যবসায় পরিচালনা করছেন তাতে তার মধ্যে ব্যবসায় নৈতিকতার বিষয়টি লক্ষ করা যাচ্ছে।
ব্যবসায়ের সব ক্ষেত্রে কোনটি সঠিক, কোনটি সঠিক নয়, ন্যায়-অন্যায়, উচিত-অনুচিত বিচার করা প্রয়োজন। ব্যবসায়ী তার নৈতিকতার মাধ্যমে সমাজের সব পক্ষের প্রতি সঠিক উপায়ে দায়িত্ব পালন করতে পারেন।
উদ্দীপকে জনাব আকিব একজন খাদ্যদ্যব্য উৎপাদনকারী। গ্রাহকের নিকট আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য তিনি কখনো তার পণ্যে রঙ মেশান না। কেউ তার দ্বারা প্রতারিত হলে তিনি ব্যথিত হন। সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি তিনি দায়িত্ব পালন করেন। এতে ক্রেতারা ন্যায্যমূল্যে উৎকৃষ্ট পণ্য পেয়ে তার প্রতি সন্তুষ্ট থাকেন। এতে সমাজে সব ক্রেতার কাছে তিনি সুপরিচিত হয়ে থাকবেন। সুতরাং জনাব আকিব যেভাবে ব্যবসায় পরিচালনা করছেন তা ব্যবসায় নৈতিকতারই প্রতিফলন।
ঘ আমি মনে করি, জনাব আকিব নৈতিকভাবেই ব্যবসায়ের সামাজিক দায়িত্ব পালন করছেন।
ব্যবসায়ের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত বিভিন্ন পক্ষের প্রতি ব্যবসায়ীর দায়িত্ব পালন করা উচিত।
উদ্দীপকের জনাব আকিব গ্রাহকদের ঠকিয়ে কখনো তার পণ্যে রঙ মেশান না। বরং তিনি গ্রাহকদেরকে উৎকৃষ্ট মানের পণ্য সরবরাহ করেন, যা গ্রাহক সন্তুষ্টি বাড়ায়। তার মাধ্যমে কেউ প্রতারিত হলে তিনি ব্যথিত হন। অর্থাৎ তিনি ক্রেতাদের প্রতি তার সামাজিক দায়িত্ব নৈতিকভাবেই পালন করেন।
ক্রেতা বা ভোক্তারা হলেন ব্যবসায়ের প্রাণ। কারণ ক্রেতারা পণ্য কিনলে তবেই ব্যবসায় টিকে থাকবে, অন্যথায় উৎপাদন অর্থহীন। তাই ব্যবসায়ীদেরকে ভোক্তাদের প্রতি দায়িত্ব পালন করতে হয়। উদ্দীপকের জনাব আকিবও এ বিষয়টি বিবেচনা করেই নৈতিকতা মেনে ব্যবসায় করেন। আমি মনে করি তিনি যথার্থভাবেই ব্যবসায়ের সামাজিক দায়িত্ব পালন করছেন।

মমমপ্রশ্ন৫ ঝিনাইদহের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কৃষকদের মধ্যে এক ধরনের কৃষক সবজি উৎপাদনে পোকা দমনে কীটনাশকের পরিবর্তে প্রাকৃতিক পদ্ধতি ব্যবহার করে। কৃষকদের অন্য গ্র“প ব্যাপক মাত্রায় কীটনাশক ব্যবহার করে। আ. আলিম ১ম শ্রেণির কৃষক থেকে বাকিতে সবজি ক্রয় করে ঢাকার বাজারে বিক্রি করে। বিক্রয় শেষে যথাসম্ভব তাড়াতাড়ি সে কৃষকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ করে দেয়। ১ম প্রকারের সবজি বিক্রয়ে তুলনামূলকভাবে কম লাভ হলেও আ. আলিম এ কাজে আÍতৃপ্তি লাভ করেন। [ঢা. বো. ১৬]
অ ক. প্রাথমিক শিল্প কী? ১
অ খ. বিএসটিআই-এর কাজের ধরন ব্যাখ্যা করো। ২
অ গ. বকেয়া অর্থ সময়মতো পরিশোধ করে আ. আলিম ব্যবসায়ী হিসেবে কোন ধরনের দায়িত্ব পালন করে? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. আ. আলিমের কীটনাশকমুক্ত সবজি বিক্রয়ের কার্যক্রমটি নৈতিকতার মানদণ্ডে মূল্যায়ন করো। ৪
৫ নং প্রশ্নের উত্তর অ
মক প্রকৃতি থেকে সম্পদ উৎপাদন ও সংগ্রহের সব ধরনের কর্মপ্রক্রিয়া বা প্রচেষ্টাকে প্রাথমিক শিল্প বলে। যেমন: ধান চাষ।
মখ বাংলাদেশের পণ্যের মান নির্ধারণ, পণ্যমান পরীক্ষা ও মান নিশ্চিত করার জন্য যে সরকারি প্রতিষ্ঠান নিয়োজিত আছে তাকে বিএসটিআই (ইধহমষধফবংয ঝঃধহফধৎফং ধহফ ঞবংঃরহম ওহংঃরঃঁঃরড়হ) বলে।
পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ করে ইঝঞও। পণ্য ও সেবার বিষয়ে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক মানের সাথে দেশি মান নির্ধারণ করে ইঝঞও। দৈর্ঘ্য, ওজন, ভার, আয়তন এবং শক্তির পরিমাপ বিষয়েও বাংলাদেশি মান প্রতিষ্ঠা করে ইঝঞও। এছাড়া পণ্য আমদানি ও রপ্তানিতেও মান নির্ধারণ করে। সুতরাং পণ্যের মান নির্ধারণে ইঝঞও-এর ভ‚মিকা গুরুত্বপূর্ণ।
মগ বকেয়া অর্থ সময়মতো পরিশোধ করে আ. আলিম ব্যবসায়ী হিসেবে সরবরাহকারীর প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেন।
ব্যবসায়ে ঋণ ও মালামাল যারা সরবরাহ করে তারাই সাধারণত সরবরাহকারী হিসেবে পরিচিত। সরবরাহকারী ব্যবসায়ীর নিকট হতে দ্রুত পাওনা পরিশোধের আশা করে। এজন্য সময়মতো পাওনা পরিশোধ ব্যবসায়ীর এক ধরনের সামাজিক দায়িত্ব।
ঝিনাইদহের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কৃষকদের মধ্যে এক ধরনের কৃষক সবজি উৎপাদনে পোকা দমনে কীটনাশকের পরিবর্তে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে। অন্য গ্র“প ব্যাপক মাত্রায় কীটনাশক ব্যবহার করে সবজি উৎপাদন করে। আ. আলিম ১ম পর্যায়ের কৃষকদের কাছ থেকে বাকিতে সবজি কিনে। এ সবজি ঢাকায় বিক্রি করে দ্রুত সে কৃষকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ করে। অর্থাৎ আ. আলিম পাওনাদার কৃষকদের অর্থ দ্রুত পরিশোধের মাধ্যমে তাদের প্রত্যাশা পূরণ করে। সে মনে করে দ্রুত বকেয়া পরিশোধ করা হলে সরবরাহকারীরা সন্তুষ্ট থাকবে। এজন্য বলা যায়, ব্যবসায়ী হিসেবে আ. আলিমের এ কাজটি সরবরাহকারীদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন হিসেবে গণ্য।
মঘ আ. আলিমের কীটনাশকমুক্ত সবজি বিক্রয়ের কার্যক্রমটি নৈতিকতার মানদণ্ডে খুবই তাৎপর্য বহন করে।
ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে উচিত-অনুচিত মেনে চলা বা ভালোকে গ্রহণ ও মন্দকে বর্জন করে চলাই হলো ব্যবসায় নৈতিকতা। মানুষ তার প্রয়োজনীয় পণ্যের জন্য ব্যবসায়ীর ওপর নির্ভরশীল। এজন্য ব্যবসায়ীকেও ভোক্তাদের চাহিদা মোতাবেক সঠিক পণ্যটি সরবরাহ করতে হয়। ব্যবসায় নৈতিকতা বর্জিত হলে বেশি দিন টিকে থাকা যায় না। এজন্য নৈতিকতা মেনে চলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
আ. আলিম পোকা দমনে কীটনাশক ব্যবহারকারী কৃষকদের কাছ হতে সবজি কিনে না। সে প্রাকৃতিক উপায়ে পোকা দমন করে এমন কৃষকদের কাছ থেকে সবজি কিনে, যা ভোক্তাদের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত। এ সবজি বিক্রি করে আ. আলিমের লাভ কম হলেও সে এতে আÍতৃপ্তি লাভ করে।
আ. আলিম নিজে উচিত-অনুচিত বিষয়গুলো বিবেচনা করে ভোক্তাদের জন্য কোন সবজি ভালো হবে তা নির্ধারণ করে। সে জানে কীটনাশক ব্যবহারকারী কৃষকদের নিকট হতে সবজি সংগ্রহ করা হলে তা ভোক্তাদের জন্য স্বাস্থ্যহানী হবে। আ. আলিমের এ নৈতিকতায় ভোক্তারা যেমন উপকৃত হচ্ছে তেমনি সে নিজেও তৃপ্ত। নৈতিকতা বজায় রাখায় সে ব্যবসায়ে দীর্ঘদিন টিকে থাকবে। অর্থাৎ আ. আলিমের কার্যক্রমে সব পক্ষই উপকৃত হচ্ছে। তাই বলা যায়, আ. আলীমের কীটনাশক মুক্ত সবজি বিক্রির কার্যক্রমে নৈতিকতার বিষয়টি ফুটে ওঠেছে।

মমমপ্রশ্ন৬ মি. রাশেদ ‘বিডি ফ্যাশন’ নামে একটি পোশাক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের মালিক। উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মান ও রুচিসম্মত ফ্যাশনের হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি বেশ সুনাম অর্জন করেছে। প্রতিষ্ঠানটি এলাকার শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতকরণের জন্য একটি প্রাইমারি বিদ্যালয় ও একটি দাতব্য চিকিৎসালয় স্থাপন করেন। তবে প্রতিষ্ঠানটি আবাসিক এলাকার পাশে স্থাপিত হওয়ায় মেশিনের শব্দের কারণে এলাকাবাসীদের অনেক অসুবিধা হচ্ছে। [রা. বো. ১৬]
অ ক. ব্যবসায় নৈতিকতা কী? ১
অ খ. কর্পোরেট সামাজিক দায়িত্ব (ঈঝজচ) কর্মসূচি বলতে কী বোঝায়? ২
অ গ. উদ্দীপকে বর্ণিত জনাব রাশেদ কোন পক্ষের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালনে অবজ্ঞা করেছেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে বিডি ফ্যাশনের কার্যক্রম মূল্যায়ন করো। ৪
৬ নং প্রশ্নের উত্তর অ
মক ব্যবসায়ের পরিচালনাগত ও বাহ্যিক বিষয়ে কোনটি সঠিক ও বেঠিক, কোনটি ন্যায় ও অন্যায়, কোনটি উচিত ও কোনটি অনুচিত প্রভৃতি বিষয়ে বিচারের মাপকাঠিকে ব্যবসায় নৈতিকতা বলে।
মখ কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলো যেসব সুযোগ-সুবিধা প্রদানমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করে তাকে কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি (ঈঝজচ) বলে।
ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ তাদের সক্ষমতা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি গ্রহণ করে। বাংলাদেশে বড় বড় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ ঈঝজচ-এর পৃথক খাত ও বরাদ্দের ব্যবস্থা করে এবং সে অনুযায়ী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকে।
মগ জনাব রাশেদ সাধারণ সম্প্রদায়ের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালনে অবহেলা করেছেন।
সমাজ ও সমাজের মানুষকে ঘিরেই ব্যবসায় ও এর কার্যাবলি আবর্তিত হয়। সমাজ হতে বিভিন্ন সুযোগ গ্রহণ করে ব্যবসায়ী সমৃদ্ধি লাভ করে। তাই সমাজের সাধারণ মানুষদের উপকারে আসে এমন কার্যক্রম পরিচালনা করাই ব্যবসায়ের উচিত।
মি. রাশেদ বিডি ফ্যাশন নামে একটি পোশাক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের মালিক। উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মান ভালো ও রুচিসম্মত ফ্যাশনের হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি সুনাম অর্জন করে। তবে প্রতিষ্ঠানটি আবাসিক এলাকার পাশে স্থাপিত হওয়ায় মেশিনের শব্দের কারণে এলাকাবাসীর অনেক অসুবিধা হচ্ছে। এলাকাবাসীর অসুবিধা হলেও বিডি ফ্যাশন তা নিরসনে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এতে সমাজের জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এ জনগণ সমাজের সাধারণ সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত। তাই বলা যায়, জনাব রাশেদ সাধারণ সম্প্রদায়ের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালনে অনীহা পোষণ করেছেন।
মঘ সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে বিডি ফ্যাশনের কার্যক্রমে ইতিবাচক ও নেতিবাচক উভয় প্রভাবই রয়েছে।
সমাজের বিভিন্ন পক্ষের প্রতি ব্যবসায় যে দায়িত্ব পালন করে তাকে ব্যবসায়ের সামাজিক দায়িত্ব পালন বলে। এতে ব্যবসায়ী ক্রেতা, ভোক্তা, সরকার, সাধারণ সম্প্রদায়, শ্রমিক-কর্মীদের প্রতি দায়িত্ব পালন করা হয়। সমাজকে কেন্দ্র করেই ব্যবসায় গড়ে ওঠে বিধায় এসব পক্ষের প্রতি দায়িত্ব পালন করতে হয়।
মি. রাশেদের বিডি ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানটি অল্প সময়ের মধ্যেই বেশ সুনাম অর্জন করেছে। প্রতিষ্ঠানটি এলাকার শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতের জন্য প্রাইমারি বিদ্যালয় ও দাতব্য চিকিৎসালয় স্থাপন করে। তবে প্রতিষ্ঠানটি আবাসিক এলাকার পাশে স্থাপিত হওয়ায় মেশিনের শব্দের কারণে এলাকাবাসীর অসুবিধা হচ্ছে।
বিডি ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানটি এলাকার একাধিক উন্নয়নে কাজ করছে, যা সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ। তাদের কার্যক্রমের ফলে এলাকার মানুষজন শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে। আবার মেশিনের শব্দের কারণে এলাকাবাসীর অসুবিধার কথা জেনেও তা নিরসনে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এ উচ্চ মাত্রার শব্দ থেকে এলাকার লোকজনের শ্রবণজনিত সমস্যা হতে পারে। তাই সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে বিডি ফ্যাশনের কার্যক্রমে ইতিবাচক ও নেতিবাচক উভয় প্রভাবই লক্ষণীয়।

মমমপ্রশ্ন৭ জনাব বেলালের দত্তপাড়া বাজারে একটি চালের আড়ত আছে। তিনি ন্যায্য মূল্যে ও সঠিক ওজনে চাল বিক্রয় করে থাকেন। পক্ষান্তরে জনাব শামীম দত্তপাড়া বাজারের আরেক ব্যবসায়ী। তিনি অধিক লাভের আশায় চালের সাথে সাদা পাথরের কণা মিশিয়ে ক্রেতাদের নিকট চাল বিক্রয় করেন। কয়েক মাস ব্যবসায়টি ভালো চললেও পরবর্তীতে তার বিক্রয়ের পরিমাণ কমতে থাকে। [চ. বো. ১৬]
অ ক. ব্যবসায় মূল্যবোধ কী? ১
অ খ. পলিথিনের ব্যবহার পরিবেশকে কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে? ২
অ গ. উদ্দীপকে জনাব বেলাল সমাজের কোন পক্ষের প্রতি দায়িত্ব পালন করেছেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. ব্যবসায় নৈতিকতার মানদণ্ডে জনাব শামীমের কর্মকাণ্ডটি মূল্যায়ন করো। ৪
৭ নং প্রশ্নের উত্তর অ
মক ব্যবসায়ের পরিচালনাগত বিষয়ে ভালো-মন্দ দিক সম্পর্কে অপেক্ষাকৃত স্থায়ীভাবে গড়ে ওঠা বিশ্বাস, ধ্যান-ধারণা, আদর্শিক মানদণ্ড, মতামত প্রভৃতি ইতিবাচক বিষয়কে ব্যবসায় মূল্যবোধ বলে।
মখ প্রকৃতির বিভিন্ন উপাদানের সাথে জীবনের যে স্বাভাবিক ভারসাম্য বিদ্যমান কোনো কারণে তা ব্যাহত হলে বা তাতে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়লে তাকেই পরিবেশ দূষণ বলে।
পরিবেশ দূষণের অন্যতম কারণ হলো পলিথিনের ব্যবহার। প্রাকৃতিক নিয়মে পলিথিনের পচন প্রক্রিয়ায় অনেক সময় লাগে। পলিথিন মাটিতে বা অন্যান্য আবর্জনার সাথে মিশে পচে সম্পূর্ণ নিঃশেষ হতে সময় লাগে শত শত বছর। ফলে পলিথিন ব্যবহারে অন্যান্য আবর্জনা ও বর্জ্য পদার্থের পচন প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। এমনকি ফেলে দেওয়া পলিথিন নালা নর্দমায় জমা হয়ে বর্জ্য পদার্থ প্রবাহকে বাধাগ্রস্ত করে। এতে ভয়াবহভাবে পরিবেশ দূষণ হয়।
মগ উদ্দীপকে জনাব বেলাল সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাশ্রেণির প্রতি দায়িত্ব পালন করছেন।
ক্রেতা ও ভোক্তা সমাজের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাদের সহযোগিতার ওপর ব্যবসায়ের সাফল্য বিশেষভাবে নির্ভরশীল। তাই ব্যবসায়ীরা ক্রেতা ও ভোক্তার প্রতি ন্যায্যমূল্যে চাহিদামতো পণ্য সরবরাহ, নতুন পণ্য উৎপাদন ও সংগ্রহ, বাজার স্থিতিশীল রাখা প্রভৃতি দায়িত্ব পালন করে।
উদ্দীপকে জনাব বেলালের দত্তপাড়া বাজারে একটি চালের আড়ত আছে। তিনি ন্যায্যমূল্যে ও সঠিক ওজনে চাল বিক্রি করেন। এতে ক্রেতা ও ভোক্তাদের অতিরিক্ত মূল্য প্রদানের ভোগান্তি হয় না। তারা ওজনের ব্যাপারেও নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন। ফলে ক্রেতা ও ভোক্তাগণ উপকৃত হন। তাই জনাব বেলালের কাজ সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তার প্রতি দায়িত্ব পালনের অন্তর্ভুক্ত।
মঘ ব্যবসায় নৈতিকতার মানদণ্ডে জনাব শামীমের কাজটি গ্রহণযোগ্য নয়।
ব্যবসায়ের সব পর্যায়ে সমতা, নীতিবোধ ও ন্যায় বিচার অনুসরণ করাই হলো ব্যবসায় নৈতিকতা। প্রতারণা করা, মাপে কম দেওয়া, ভেজাল মেশানো, কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করা, অতি মুনাফার লোভ করা প্রভৃতি কাজ ব্যবসায়ের নৈতিকতার পরিপন্থী।
উদ্দীপকের জনাব শামীম দত্তপাড়া বাজারের চাল ব্যবসায়ী। তিনি অধিক লাভের আশায় চালের সাথে সাদা পাথরের কণা মিশিয়ে বিক্রি করেন। নৈতিকতা বহিভর্‚ত কাজ করায় ভোক্তারা তার প্রতি অসন্তুষ্ট হয়। কয়েক মাস ব্যবসায়টি ভালো চললেও পরবর্তীতে বিক্রি কমতে থাকে।
জনাব শামীমের উক্ত কাজটি সম্পূর্ণ অনৈতিক। ভোক্তারা সবসময় ব্যবসায়ীদের থেকে উৎকৃষ্ট মানের পণ্য সংগ্রহের প্রত্যাশা করে। কিন্তু শামীম তা না করে চাল বিক্রয়ে অনৈতিক পথ অবলম্বন করে। এভাবে ভোক্তাদের প্রতারিত করা হচ্ছে, যা ব্যবসায়ের নৈতিকতার পরিপন্থী। সুতরাং, জনাব শামীমের এরূপ কাজ সম্পূর্ণ অনুচিত ও ব্যবসায়ের নৈতিকতা বহিভর্‚ত।

মমমপ্রশ্ন৮ আসিফ সাহেব একজন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের ব্যবসায়ী। তিনি কখনোই পণ্যে ভেজাল মেশান না। কর্মচারী একদিন তার অজান্তে কিছু পণ্যে ভেজাল মেশালে তিনি তা জানতে পেরে সাথে সাথে তাকে চাকরি হতে বরখাস্ত করলেন। তিনি ভাবলেন সমাজের মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ভোগ করে জীবন ধারণ করেন। এসব পণ্যের গুণ ও মান ভালো না হলে জনগণের জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যাবে। একজন সচেতন ব্যবসায়ীর দ্বারা তা আদৌ কাম্য হতে পারে না। তাছাড়া জনগণ অসাধু ব্যবসায়ী হিসেবে চিহ্নিত করে বসলে ব্যবসায় টিকবে না। [সি. বো. ১৬]
অ ক. পরিবেশ দূষণ কী? ১
অ খ. বণিক সমিতি বলতে কী বোঝায়? ২
অ গ. কোন অনুভ‚তির কারণে আসিফ সাহেব কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করলেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. ‘সমাজের মানুষের প্রতি ব্যবসায়ীদের অনেক দায়িত্ব-কর্তব্য রয়েছে’ Ñ এখানে আসিফ সাহেব সমাজের মানুষের প্রতি ব্যবসায়ীদের কোন ধরনের দায়বদ্ধতার কথা বোঝাতে চেয়েছেন? বিশ্লেষণ করো। ৪
৮ নং প্রশ্নের উত্তর অ
মক প্রকৃতির বিভিন্ন উপাদানের সাথে জীবনের যে স্বাভাবিক ভারসাম্য বিদ্যমান কোনো কারণে তা ব্যাহত হলে বা তাতে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়লে তাকে পরিবেশ দূষণ বলে।
মখ কোনো নির্দিষ্ট এলাকার ব্যবসায়ীগণ পারস্পরিক ব্যবসায়িক উন্নয়নের জন্য যৌথ প্রচেষ্টায় যে অমুনাফাভোগী সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে তাকে বণিক সমিতি বলে।
শিল্প ও বণিক সমিতি দেশের ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ সংস্থা। দেশের শিল্প ও বাণিজ্যের উন্নয়নের লক্ষ্যেই এটি গঠিত ও পরিচালিত হয়ে থাকে। এ সংগঠন দেশের অভ্যন্তরে ব্যবসায়ীদের বিরোধ নিষ্পত্তিতে কাজ করে। এটি দেশের বিনিয়োগ বাড়ায় ও রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণে কাজ করে।
মগ নৈতিকতা না থাকায় জনাব আসিফ সাহেব কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করেছেন।
ব্যবসায় নৈতিকতা হলো ব্যবসায়ের পরিচালনাগত বিষয়ে প্রকৃত পক্ষেই কোনটি সঠিক ও কোনটি বেঠিক, কোনটি ন্যায় ও কোনটি অন্যায়, কোনটি উচিত ও কোনটি অনুচিত ইত্যাদি বিষয়ের মাপকাঠি। নৈতিক মানদণ্ডে ব্যবসায়ীকে ব্যবসায় পরিচালনা করতে হয়।
জনাব আসিফ সাহেব একজন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের ব্যবসায়ী। যিনি নৈতিকতার মানদণ্ডে একজন সৎ ব্যবসায়ী। তিনি পণ্যে কখনোই ভেজাল মেশান না। তিনি মনে করেন এসব পণ্যের গুণ ও মান ভালো না হলে মানুষের জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। তার কর্মচারী একদিন তার অজান্তে পণ্যে ভেজাল মেশালো, যা ব্যবসায়ের নৈতিকতার পরিপন্থী। তিনি জানতে পেরে কর্মচারীকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করলেন। অর্থাৎ জনাব আসিফ সাহেবের নৈতিকতার কারণে তিনি তার কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করেছেন।
মঘ সমাজের মানুষের প্রতি ব্যবসায়ীদের অনেক দায়িত্ব-কর্তব্য রয়েছে। এখানে আসিফ সাহেব ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি দায়বদ্ধতার কথা বোঝাতে চেয়েছেন।
মুনাফা অর্জনের পাশাপাশি সমাজের মানুষের জন্য কিছু মঙ্গলময় ও কল্যাণমূলক কাজে অংশগ্রহণ করাকে ব্যবসায়ের সামাজিক দায়বদ্ধতা বলে। সমাজের বিভিন্ন পক্ষ যেমন: ক্রেতা বা ভোক্তা, মালিক, বিনিয়োগকারী, কর্মচারী ইত্যাদি ব্যক্তির প্রতি ব্যবসায়ীদের কিছু কর্তব্য পালন করতে হয়।
জনাব আসিফ সাহেব নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের ব্যবসায়ী। তিনি কখনো পণ্যে ভেজাল মেশান না। তিনি ভাবেন সমাজের মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ভোগ করে জীবনধারণ করেন। এসব পণ্যের গুণ ও মান ভালো না হলে জনগণের জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। একজন ব্যবসায়ী দ্বারা তা কাম্য নয়।
একজন কর্মচারী পণ্যে ভেজাল মেশালে আসিফ সাহেব তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেন। তিনি বলেন, জনগণ অসাধু ব্যবসায়ীকে একবার চিহ্নিত করলে সে ব্যবসায়ীর ব্যবসায় সফল হওয়ার সুযোগ নেই। তিনি ব্যবসায়ের সামাজিক দায়বদ্ধতায় ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি যেসব কর্তব্য আছে সেগুলো তার বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরেছেন। অতএব, জনাব আসিফ সাহেব সমাজের মানুষের প্রতি ব্যবসায়ের সামাজিক দায়বদ্ধতাকে স্পষ্ট করেছেন।

মমমপ্রশ্ন৯ ইমতিয়াজ ও রাজিন দু’জন ব্যবসায়ী। ইমতিয়াজ সীমিত মুনাফা ও মানসম্মত সেবা এ দুই নীতির আলোকে ব্যবসায় করেন। তার ব্যবসায়ের মুনাফা কম হলেও তিনি খুশি। অন্যদিকে রাজিন হঠাৎ করে ধনী হওয়ার আশায় ক্রেতাকে মিথ্যা কথা বলে অপেক্ষাকৃত নিæমানের পণ্য সাজিয়ে দেয়। ক্রেতারা তাৎক্ষণিকভাবে তা না বুঝলেও পরবর্তীতে এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন করে। [য. বো. ১৬]
অ ক. মূল্যবোধ কী? ১
অ খ. শিল্প কারখানা কীভাবে পরিবেশ দূষণ করে? ২
অ গ. উদ্দীপকে বর্ণিত ইমতিয়াজ কার প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করে? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. রাজিনের ব্যবসায় কার্যক্রমটি নৈতিকতার বিচারে মূল্যায়ন করো। ৪
৯ নং প্রশ্নের উত্তর অ
মক কোনো বিষয়ে ভালো-মন্দ সম্পর্কে একান্ত ব্যক্তিগত ও স্থায়ী ধ্যান-ধারণা ও বিশ্বাসকে মূল্যবোধ বলে।
মখ আমাদের চারপাশের সবকিছুই যা আমাদের জীবনধারাকে প্রভাবিত করে তাকে পরিবেশ বলে।
শিল্প কারখানা স্থাপনের ক্ষেত্রে বনজ সম্পদ নিধন থেকে শুরু করে জলাশয় ভরাট পর্যন্ত বিভিন্ন কাজে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে পরিবেশ দূষণ করে। প্রতিষ্ঠানের বর্জ্য পদার্থ অপরিশোধিত অবস্থায় নর্দমা ও নদী-নালা, খাল- বিলসহ অন্যান্য জলাশয়ে নিক্ষেপ করা হয়। ফলে পানি দূষণের সাথে পরিবেশের ব্যাপক বিপর্যয় সৃষ্টি করে।
মগ ইমতিয়াজ ক্রেতা ও ভোক্তার প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেন।
ব্যবসায়ের বিভিন্ন (ক্রেতা-ভোক্তা প্রতিযোগি, সরকার) পক্ষ রয়েছে। এসব পক্ষের প্রতি যথাযথ দায়িত্ব পালন করা ব্যবসায়ের জন্য আবশ্যক।
ইমতিয়াজ সীমিত মুনাফা ও মানসম্মত সেবা এ দুই নীতির আলোকে ব্যবসায় পরিচালনা করেন। এতে ক্রেতা ও ভোক্তারা ন্যায্যমূল্যে মানসম্মত পণ্য পেয়ে থাকে। একজন ব্যবসায়ীর দায়িত্ব হলো ক্রেতাদের মানসম্মত পণ্য ও সেবা যৌক্তিক মূল্যে সরবরাহ করা, পণ্যে ভেজাল ও ওজনে কম না দেওয়া। ইমতিয়াজ ক্রেতা ও ভোক্তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন। তাই তিনি তাদের ন্যায্যমূল্যে উন্নতমানের পণ্য সরবরাহ করেন। এটি ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি তার সামাজিক দায়িত্ব।
মঘ রাজিনের ব্যবসায় কার্যক্রমটি সম্পূর্ণভাবেই অনৈতিক বলে আমি মনে করি।
নৈতিকতা হলো নীতিবোধ, যা মানুষকে অন্যায় কাজ থেকে বিরত রাখে। নীতিবোধের বিরুদ্ধে কোনো কাজ করা বা যেটি সমাজের চোখে ঘৃণিত সেটি অনৈতিক কাজ।
রাজিন হঠাৎ করে ধনী হওয়ার আশায় ক্রেতাকে মিথ্যা কথা বলে নিæমানের পণ্য সাজিয়ে দেয়। এ কাজের মাধ্যমে তার নীতিবোধের ঘাটতি প্রমাণিত হয়। রাজিন একজন ব্যবসায়ী। একজন ব্যবসায়ী হিসেবে তার প্রয়োজন ছিল সৎ থাকা। কেননা সততা ব্যবসায়ের জন্য সর্বোৎকৃষ্ট পন্থা।
রাজিন তার ব্যবসায়ে নৈতিকতা মানেন না। তিনি নিæমানের পণ্য বিক্রয় করেন এবং গ্রাহকদের কাছ থেকে অধিক দাম আদায় করেন। ব্যবসায়ের প্রতিটি কার্যক্রম পরিচালনায় ব্যবসায়ীকে সৎ হতে হয়। সবকিছুকে নৈতিকতার আলোকে বিচার করতে হয়। খারাপকে বর্জন করা ব্যবসায়ীর নৈতিক দায়িত্ব। সুতরাং, নৈতিকতার বিচারে রাজিনের কাজ অনৈতিক, যা ব্যবসায় সমাজে গ্রহণযোগ্য নয়।

মমমপ্রশ্ন১০ বিসমিল­াহ এন্টারপ্রাইজের মালিক ইমতিয়াজ তার প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের ব্যাপারে খুবই সচেতন। তিনি তার প্রতিবেশী ব্যবসায়ীদের নিয়ে সংঘ তৈরি করেন। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে একে অন্যের সাথে ক্ষতিকর প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হবেন না। এতে করে তাদের পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ে। ইমতিয়াজ যথাসময়ে সরকারকে করও প্রদান করেন। [রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ঢাকা]
অ ক. ভর্তুকী প্রদান সহায়তা কী? ১
অ খ. ক্রেডিট কার্ড বলতে কী বোঝায়? ব্যাখ্যা করো। ২
অ গ. ইমতিয়াজ কাদের পক্ষে সামাজিক দায়িত্ব পালন করছে? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. কর প্রদানে ইমতিয়াজ কী কোন সামাজিক দায়িত্ব পালন করছে? তোমার মতামত দাও। ৪
১০ নং প্রশ্নের উত্তর
মক ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সেবা কর্ম যথাযথ মূল্যের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখার জন্য সরকার কর্তৃক প্রদত্ত আর্থিক সুবিধাকে ভর্তুকি প্রদান সহায়তা বলে। অ
মখ ঋণ সুবিধা সম্বলিত চুম্বক শক্তিসম্পন্ন যে প্লাস্টিক কার্ড দিয়ে গ্রাহক অর্থ উত্তোলন করে, তা-ই হলো ক্রেডিট কার্ড। অ
নির্দিষ্ট মার্চেন্ট প্রতিষ্ঠান থেকে পণ্য ও সেবা ক্রয়ে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহৃত হয়। এ কার্ডের মাধ্যমে গ্রাহককে ক্রেডিট বা ঋণ সুবিধা প্রদান করা হয়। তবে গ্রহীতা তার অবস্থা বিবেচনায় একটা সীমা পর্যন্ত ঋণ সুবিধা পায়। এটিএম বুথ থেকে অর্থ উত্তোলনেও এ কার্য ব্যবহার করা হয়।
মগ ইমতিয়াজ স্বগোত্রীয় ব্যবসায়ীদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেছেন। অ
ক্ষতিকর প্রতিযোগিতা প্রতিরোধ করার জন্য এবং বিনিয়োগকারীদের উৎসাহিত করার জন্য ব্যবসায়ীদের নিজেদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করে থাকে। স্বগোত্রীয় ব্যবসায়ীদের অন্যায় ও ক্ষতিকর প্রতিযোগিতার ফলে ব্যবসায়ের পাশাপাশি সমাজ তথা দেশের ক্ষতি সাধন হয়।
উদ্দীপকে ইমতিয়াজ তার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের ব্যাপারে খুবই সচেতন। তিনি তার প্রতিবেশী ব্যবসায়ীদের নিয়ে সংঘ তৈরি করেন। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে একে অন্যের সাথে ক্ষতিকর প্রতিযোগিতায় লিপ্ত না হওয়া। এতে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম যথাযথভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব হবে। তাই বলা যায়, ইমতিয়াজের কাজ স্বগোত্রীয় ব্যবসায়ীদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেছে।
মঘ জনাব ইমতিয়াজ কর প্রদানের মাধ্যমে সরকারের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেছেন বলে আমি মনে করি। অ
সরকারি আইন-কানুন ও নীতির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে যথাযথ কর ও রাজস্ব প্রদান করার মাধ্যমে ব্যবসায় সরকারের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করে। ব্যবসায়ের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হলো সরকার। দেশের ব্যবসায় সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় যেমন সরকারের দায়িত্ব রয়েছে তেমনি সরকারের প্রতি ব্যবসায়ের দায়িত্ব রয়েছে।
উদ্দীপকে ইমতিয়াজ পারস্পরিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যবসায়ীদের নিয়ে সংঘ গঠন করেন। এ ছাড়াও তিনি যথাসময়ে সরকারকে কর প্রদান এবং অন্যদের উৎসাহিত করেন। তার এই কর ও রাজস্ব প্রদান সরকারের প্রতি দায়িত্ব পালনে ভ‚মিকা রাখে।
জনাব ইমতিয়াজ সঠিক সময়ে কর প্রদান করে সরকারের রাজস্ব ও কর আইন যথাযথভাবে পালন করেন। সরকারি আইন কানুন ও নীতিমালার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে ব্যবসায় পরিচালনা করা ব্যবসায়ের দায়িত্ব। ইমতিয়াজ এই নীতিমালা ও আইন মেনে কর প্রদান করেন। ফলে সরকার তার সামাজিক কাজ যেমন জনগণের উন্নয়নে ব্যয় করতে পারেন যা ব্যবসায়িক দিক দিয়ে সামাজিক দায়িত্ব পালন করে। তাই বলা যায়, ইমতিয়াজ যথাসময়ে কর প্রদান করায় সরকারের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করেন।

মমমপ্রশ্ন১১ জনাব অমিত একজন চাল ব্যবসায়ী। তিনি ন্যায্যমূল্যে এবং সঠিক ওজনে চাল বিক্রি করে থাকেন। অন্যদিকে রতন নামে আরেকজন চাল ব্যবসায়ী অধিক লাভের আশায় চালের সাথে ছোট ছোট পাথর মিশিয়ে, প্রতি বস্তায় পরিমাণে কিছু চাল কম দিয়ে আবার কখনও বেশি দামের চালের সাথে কম দামের চাল মিশিয়ে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করেন। বিষয়টি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নজরে আসায় তার লাইসেন্স বাতিল করা হয়। [নটর ডেম কলেজ, ঢাকা]
অ ক. ব্যবসায় নৈতিকতা বলতে কী বুঝ? ১
অ খ. ঈঝজ-এর ধারণাটি ব্যাখ্যা করো। ২
অ গ. উদ্দীপকে জনাব অমিত সমাজের কোন পক্ষের প্রতি দায়িত্ব পালন করেছেন? ব্যাখ্যা করো। ৩
অ ঘ. ব্যবসায়ী হিসেবে জনাব রতনের কর্মকাণ্ড নৈতিকতা ও মূল্যবোধের দৃষ্টিকোণ থেকে মূল্যায়ন করো। ৪
১১ নং প্রশ্নের উত্তর
মক ব্যবসায়ের পরিচালনাগত ও বাহ্যিক বিষয়ে কোনটি সঠিক ও বেঠিক, কোনটি ন্যায় ও অন্যায় প্রভৃতি বিচারের মাপকাঠিকে ব্যবসায় নৈতিকতা বলে। অ
মখ ঈঝজ-এর পূর্ণরূপ হলো ঈড়ৎঢ়ড়ৎধঃব ঝড়পরধষ জবংঢ়ড়হংরনরষরঃু বা কর্পোরেট সামাজিক দায়িত্ব। অ
কর্পোরেট সামাজিক দায়িত্ব হলো অবশ্যই করণীয় এমন কর্তব্যের বাইরে বড় কোম্পানিসমূহ সমাজ ও সমাজ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পক্ষের প্রতি দায়িত্ব। এ সকল প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সামর্থ্য পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকায় তারা ব্যবসায়ের পাশাপাশি সমাজের বিভিন্ন পক্ষের প্রতি নানাভাবে দায়িত্ব পালন করে।
মগ উদ্দীপকে জনাব অমিত সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি সামাজিক দায়িত্ব পালন করছেন। অ
ন্যায্যমূল্যে উন্নতমানের পণ্য সরবরাহ করে ক্রেতা বা ভোক্তা সন্তুষ্টি বিধান হলো ক্রেতা বা ভোক্তাদের প্রতি ব্যবসায়ের সামাজিক দায়বদ্ধতা। ক্রেতা বা ভোক্তা হলো ব্যবসায়ের প্রাণ। কারণ ক্রেতা পণ্য ক্রয় করলে ব্যবসায় টিকে থাকবে অন্যথায় উৎপাদন অর্থহীন।
উদ্দীপকে জনাব অমিত একজন চাল ব্যবসায়ী। তিনি ন্যায্যমূল্যে এবং সঠিক ওজনে চাল বিক্রয় করে থাকেন। তিনি ক্রেতাদের চাহিদা ও রুচির প্রতি লক্ষ্য রাখেন। ক্রেতা বা ভোক্তাগণ যেন অসন্তুষ্ট না হন সেই দিকে লক্ষ্য রেখে ভালো মানের চাল সরবরাহ করেন। যা ব্যবসায়ের পাশাপাশি সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি দায়িত্ব পালনের বৈশিষ্ট্যের সাথে সম্পর্কযুক্ত। তাই বলা যায়, জনাব অমিত ব্যবসায়ের পাশাপাশি সমাজের ক্রেতা ও ভোক্তাদের প্রতি দায়িত্ব পালন করেন।
মঘ ব্যবসায়ী হিসেবে জনাব রতনের কর্মকাণ্ড নৈতিকতা ও মূল্যবোধের দৃষ্টিকোণ থেকে অনৈতিক কাজ হিসেবে বিবেচিত। অ
নৈতিকতা হলো ন্যায়-অন্যায়, উচিত ও অনুচিত এবং ভালো-মন্দ বিচারের মাপকাঠি। আর মূল্যবোধ হলো মানুষের ভালো-মন্দ দিক সম্পর্কে অপেক্ষাকৃত স্থায়ীভাবে গড়ে ওঠা বিশ্বাস ও ধ্যান-ধারণা।
উদ্দীপকে জনাব রতন একজন ব্যবসায়ী। তিনি ব্যবসায়িক অধিক লাভের আশায় চালের সাথে ছোট ছোট পাথর মিশান। আবার প্রতি বস্তায় চালের পরিমাণ কম দেন। এছাড়াও বেশি দামের চালের সাথে কম দামের চাল মিশিয়ে ক্রেতাদের প্রতারিত করেন।
রতনের সব কার্যক্রম নৈতিকতা ও মূল্যবোধের বিরোধী। কারণ নৈতিকভাবে ব্যবসায় করলে তিনি ক্রেতাদের সঠিক ও ন্যায্যমূল্যে ভালো মানের পণ্য সরবরাহ করতেন। ক্রেতাদের চাহিদা এবং সঠিক ওজনের চাল প্রদান করতেন। কিন্তু জনাব রতন ক্রেতাদের কথা না ভেবে নিজের স্বার্থের জন্য মূল্যবোধের অবক্ষয় করে। তাই বলা যায়, জনাব রতন ব্যবসায়িক মূল্যবোধ ও নৈতিকতার দিক থেকে অনৈতিক ও অসৎ কাজের সাথে জড়িত।

 

প্রিয় জনের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply